বৈরুতে বিস্ফোরণের ঘটনায় সরকারবিরোধী বিক্ষোভ

বৈরুতে বিস্ফোরণের ঘটনায় সরকারবিরোধী বিক্ষোভ

আন্তর্জাতিক ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১০:৩৩ ৭ আগস্ট ২০২০   আপডেট: ১০:৩৪ ৭ আগস্ট ২০২০

ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

অ্যামোনিয়াম নাইট্রেট বিস্ফোরণে ধ্বংসস্তূপে পরিণত হওয়া লেবাননের রাজধানী বৈরুতের সড়ক এবার বিক্ষোভে উত্তপ্ত হয়ে উঠেছে। সরকারবিরোধী অবস্থান নিয়ে বিক্ষোভকারীরা রাস্তায় নামলে নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যদের সঙ্গে তাদের সংঘর্ষে এ পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়েছে। 

সংবাদ সংস্থা বিবিসির খবরে জানা যায়, বৃহস্পতিবার রাতে লেবাননের রাজধানী শহরের বিভিন্ন স্থানে বিক্ষোভকারীদের সরকারবিরোধী স্লোগান দিতে দেখা যায়। দেশটির পার্লামেন্ট ভবনের কাছে অবস্থানরত বিক্ষোভকারীদের ওপর চড়াও হয় পুলিশ। তাদের ছত্রভঙ্গ করতে কাঁদুনে গ্যাস ব্যবহার করে নিরাপত্তা বাহিনী।

গত মঙ্গলবারের ওই বিস্ফোরণের পরই বিক্ষোভকারীরা ক্ষিপ্ত হয়ে রাস্তায় নেমে আসেন। সরকারিভাবে এই ভয়াবহ বিস্ফোরণের কারণ হিসেবে বলা হয়েছে, গুদামে মজুত ২ হাজার ৭৫০ টন অ্যামোনিয়ান নাইট্রেট বিস্ফোরিত হয়ে মারাত্মক ওই বিপর্যয়ের ঘটনা ঘটেছে। ২০১৩ সাল থেকে এতগুলো রাসায়নিক অনিরাপদে সেখানে মজুত ছিল।

লেবাননের অনেকে অভিযোগ তুলছেন, সরকারের গাফিলতির কারণেই এমন ভয়াবহ বিস্ফোরণের মুখে পড়তে হয়েছে শহরের মানুষকে। যাতে অসংখ্য মানুষ হতাহত ছাড়াও তিন লক্ষাধিক মানুষ হয়েছে বাড়িছাড়া। শহরটিতে মজুত খাবারের ৮৫ শতাংশ ধ্বংস হয়েছে। যা নিয়ে দেখা দিয়েছে উদ্বেগ, আতঙ্ক আর হতাশা।

এদিকে বিস্ফোরণের ঘটনায় জরুরি তদন্তের স্বার্থে ১৬ জনকে আটক করা হয়েছে বলে জানিয়েছে লেবাননের রাষ্ট্রীয় সংবাদ সংস্থা। যদিও ওই ঘটনার পর দুই কর্মকর্তা স্বেচ্ছায় পদত্যাগ করেছেন। 

এর আগে বৃহস্পতিবার ঘটনাস্থল পরিদর্শনে যান ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাঁক্রো। বিদেশি নেতাদের মধ্যে তিনিই প্রথম বৈরুত সফরে গেলেন। এ সময় তিনি সাংবাদিকদের কাছে লেবানন কর্তৃপক্ষের গভীর থেকে পরিবর্তনের কথা বলেন। একইসঙ্গে বিস্ফোরণের ঘটনায় আন্তর্জাতিক তদন্তের দাবি জানান।

ডেইলি বাংলাদেশ/আরএএইচ