বেড়ে চলেছে ‘মানুষখেকো’ চিতাবাঘ, প্রাণ হারাচ্ছে অসংখ্য মানুষ

বেড়ে চলেছে ‘মানুষখেকো’ চিতাবাঘ, প্রাণ হারাচ্ছে অসংখ্য মানুষ

আন্তর্জাতিক ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১৪:০৩ ১২ জুলাই ২০২০  

ছবিঃ সংগৃহীত

ছবিঃ সংগৃহীত

ভারতে চিতাবাঘের ভবিষ্যৎ নিয়ে প্রতিনিয়ত দুশ্চিন্তা বাড়ছে। গত দুই দশকে প্রায় একশোর বেশি চিতাবাঘকে ‘মানুষখেকো’ ঘোষণা করা হয়েছে। সম্প্রতি আবারো আলোচনায় এল এই চিতাবাঘ।

সম্প্রতি ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এই সময় এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে, শনিবার ভারতের উত্তরাখণ্ড রাজ্যে বদ্রীনাথ বন বিভাগে গুলি করে ‘মানুষখেকো’ একটি চিতাবাঘ খতম করা হয়েছে।

এ বিষয়ে বদ্রীনাথ ডিভিশনের বিভাগীয় বনকর্তা আশুতোষ সিং জানান, মানুষের রক্তের স্বাদ পেয়ে লোভাতুর হয়ে উঠেছিলো চিতাবাঘটি। গত ৩০ জুন এটিকে ‘মানুষখেকো’ ঘোষণা করা হয়েছিলো।

ওই বন কর্মকর্তা আরো জানান, ২৮ মে বদ্রীনাথ ডিভিশনের গয়ারবরাম এলাকায় ওই চিতাবাঘটি প্রথমবার মানুষ মেরেছিলো। এরপর ২৯ জুন চিতাবাঘটি দ্বিতীয় মানুষ শিকার করার পরই মুখ্য বন্যপ্রাণ ওয়ার্ডেনকে চিঠি লিখে চিতাবাঘটিকে ‘মানুষখেকো’ ঘোষণা করা হয়। অনুমতি পেয়ে শনিবার বন দফতরের ভাড়া-করা শুটার দ্বারা বদ্রীনাথ ফরেস্ট ডিভিশনের নারায়ণবাগার রেঞ্জে চিতাবাঘটিকে গুলি করে মারা হয়।

অপরদিকে আলমোরা ফরেস্ট ডিভিশনে আরেকটি চিতাবাঘকে ‘মানুষখেকো’ ঘোষণা করা হয়েছে। ৮ জুলাই ওই ডিভিশনের উদাল এরিয়ায় চিতাবাঘটির হামলায় দু-বছরের একটি শিশু মারা যায়। তার পর দিন আরো একজনকে মেরে ফেলে চিতাবাঘ। তাই চিতাবাঘ মারতে উত্তরপ্রদেশ থেকে দুই শিকারি আনা হয়েছে।

শনিবার সকালে আরো একটি পৃথক ঘটনায় নৈনিতাল জেলায় চিতাবাঘের হামলায় ৬০ বছর বয়সী এক নারীর মৃত্যু হয়েছে। এর আগে ২৩ জুন জঙ্গলে ঘাস কাটতে গিয়ে আরো এক নারী চিতাবাঘের আক্রমণে প্রাণ হারান।

ডেইলি বাংলাদেশ/জেএইচএফ