মনিটরিংয়ে আসছে অনুদানপ্রাপ্ত বেসরকারি গ্রন্থাগার

মনিটরিংয়ে আসছে অনুদানপ্রাপ্ত বেসরকারি গ্রন্থাগার

নিজস্ব প্রতিবেদক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ২০:৩০ ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২০   আপডেট: ২১:১২ ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২০

জাতীয় সংসদ ভবন

জাতীয় সংসদ ভবন

বইয়ের পরিবর্তে টাকা উত্তোলন বন্ধে মনিটরিংয়ের আওতায় আসছে অনুদানপ্রাপ্ত বেসরকারি গ্রন্থাগার। এ লক্ষ্যে প্রায় ৮ শতাধিক অনুদানপ্রাপ্ত বেসরকারি গ্রন্থাগারগুলোয় মনিটরিং জোরদার করার সুপারিশ করা হয়েছে।

রোববার সংসদ ভবনে সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভায় এ সুপারিশ করা হয়। কমিটির সভাপতি সিমিন হোসেনের (রিমি) সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় বেসরকারি গ্রন্থাগারগুলোয় অনুদানের পরিমাণ আরো বৃদ্ধি করার সুপারিশও করা হয়।

শিল্পকলা একাডেমির গত এক বছরের কার্যক্রম, বাজেট, আয় ও ব্যয় এবং গত তিন বছরে একাডেমির মাধ্যমে কোন কোন শিল্পী বিদেশ গিয়েছেন ও বিদেশ থেকে কারা বাংলাদেশে এসেছেন তার তালিকাসহ একটি বিস্তারিত প্রতিবেদন সভায় উপস্থাপন করা হয়।

সভায় গণগ্রন্থাগার অধিদফতরের চলমান কার্যক্রম সম্পর্কে অবহিত করা হয়। সভায় উল্লেখ করা হয়, অধিদফতর থেকে ২০১৭-২০২০ মেয়াদে ‘অনলাইনে গ্রন্থাগারগুলোর ব্যবস্থাপনা ও উন্নয়ন’ শীর্ষক প্রকল্প শুরু হয়েছে। পাশাপাশি ‘চট্টগ্রাম মুসলিম ইনস্টিটিউট সাংস্কৃতিক কমপ্লেক্স স্থাপন’ শীর্ষক প্রকল্পটির ২০১৮-২০২০ মেয়াদে বাস্তবায়ন কাজ চলছে।

এছাড়া জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উদযাপন উপলক্ষে রচনা, বইপাঠ, গল্পবলা, চিত্রাঙ্কন ও কবিতা আবৃত্তিসহ বিভিন্ন কার্যক্রম গ্রহণ করা হয়েছে বলে অবহিত করা হয়।

বিল অ্যান্ড ম্যালিন্ডা ফাউন্ডেশনের আর্থিক সহায়তায় ব্রিটিশ কাউন্সিল ও গণগ্রন্থাগার অধিদফতরের যৌথ উদ্যোগে লাইব্রেরিস আনলিমিটেড প্রকল্প বাস্তবায়নের মাধ্যমে দেশের সব সরকারি গ্রন্থাগারগুলোর জনবলের দক্ষতা বৃদ্ধি এবং উন্নততর পাঠ সেবাদান নিশ্চিত করার পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে বলে সভায় উল্লেখ করা হয়।

সভায় আরো জানানো হয়, মাইকেল মধুসূদন দত্তবাড়ির দীর্ঘমেয়াদী সংস্কার সংরক্ষণ কাজ অন্তর্ভুক্ত করে ‘খুলনা বিভাগের সংরক্ষিত পুরাকীর্তিগুলোর সংস্কার, সংরক্ষণ এবং অবকাঠামোগত উন্নয়ন’ শীর্ষক প্রকল্পের ডিপিপি প্রণয়নের কাজ চলমান রয়েছে।

বেসরকারি গ্রন্থাগারের জন্য মানসম্পন্ন বই ক্রয় নিশ্চিত করার লক্ষ্যে মন্ত্রণালয় থেকে বেসরকারি গ্রন্থাগারে অনুদান বরাদ্দ এবং বই নির্বাচন ও সরবরাহ সংক্রান্ত নীতিমালা ২০১৯’ প্রণয়ন করা হয়েছে বলে অবহিত করা হয়।

কমিটির সদস্য সংস্কৃতি বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী কে এম খালিদ, আসাদুজ্জামান নূর ও অসীম কুমার উকিল সভায় অংশ নেন। এছাড়া সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সচিব, শিল্পকলা একাডেমির মহাপরিচালক ও প্রত্নতত্ত্ব অধিদফতরের মহাপরিচালকসহ মন্ত্রণালয় এবং সংসদ সচিবালয়ের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা সভায় উপস্থিত ছিলেন।

ডেইলি বাংলাদেশ/আরএইচ