Alexa বিয়ের ২৪ ঘণ্টার মাথায় পুরুষাঙ্গ হারালেন যুবক

বিয়ের ২৪ ঘণ্টার মাথায় পুরুষাঙ্গ হারালেন যুবক

নীলফামারী প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ২১:২৯ ২৩ জানুয়ারি ২০২০  

ছবিঃ প্রতীকী

ছবিঃ প্রতীকী

নীলফামারীতে নববিবাহিত এক যুবকের পুরুষাঙ্গের অগ্রভাগ কেটে ফেলা হয়েছে। যুবকের নাম নুর আলম সবুজ। বুধবার রাতে নীলফামারীর সৈয়দপুর উপজেলার কামারপুকুর ইউনিয়নের ধলাগাছ পশ্চিমপাড়ার তার বাড়ি পাশের পঁচানালার পাড় এলাকা থেকে অচেতন অবস্থায় তাকে উদ্ধার করা হয়। বর্তমানে ওই যুবক রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। তার অবস্থা আশঙ্কামুক্ত। তবে কারা, কি কারণে পুরুষাঙ্গ কর্তনের পর তাকে বাড়ির কাছে ফেলে রেখে যায় তা তদন্তাধীন রয়েছে।

বুধবার রাত ১১টার দিকে শ্বশুর বাড়ি থেকে খাওয়া দাওয়া শেষে বের হন সবুজ। এ সময় তার দুই বন্ধু সঙ্গে ছিল। রাত সাড়ে ১২টার দিকে স্থানীয়দের মাধমে খবর পেয়ে তাদের বাড়ি সংলগ্ন পঁচানালার পাড় থেকে তাকে অজ্ঞান অবস্থায় উদ্ধার করেন সৈয়দপুর থানা পুলিশ। আশঙ্কাজনক অবস্থায় উদ্ধার করে তাকে সৈয়দপুর ১০০ শয্যা বিশিষ্ট হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এ সময় হাসপাতালে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে পর্যবেক্ষণ করে দেখেন তার পুরুষাঙ্গের সামনের অংশ কেটে ফেলা হয়েছে। এতে করে তার শরীর থেকে প্রচুর রক্তক্ষরণ হয়েছে। শারীরিক অবস্থা গুরুতর হওয়ায় হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক দ্রুত সবুজকে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠান।

সৈয়দপুর উপজেলার কামারপুকুর ইউনিয়নের ধলাগাছ পশ্চিমপাড়ার এলাকার মোহাম্মদ আলীর ছেলে নুর আলম সবুজ। তিনি ময়মনসিংহ ক্যাডেট কলেজের জুনিয়র কেয়ারটেকার। গত ২১ জানুয়ারি একই ইউনিয়নের কামারাপুকুর আইসঢাল হাজীপাড়ার মো. রেজাউল করিমের মেয়ে রেজভী এলায়েজ জান্নাতিকে বিয়ে করেন সবুজ। ওই বিয়েতে তার পরিবারের সম্মতি ছিল না। কিন্তু মেয়েটির সাথে দীর্ঘদিনের প্রেমের সম্পর্ক থাকার কারণে পরিবারের অসম্মতিতেই বিয়ে করেন তিনি। এসময় সবুজের সাথে তার বন্ধু অপু ও কালা উপস্থিত ছিল।

সৈয়দপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. আবুল হাসনাত খান বলেন, এ ঘটনায় এখন পর্যন্ত কোনো মামলা হয়নি। তবে আহত যুবকের স্ত্রী ও শাশুড়িকে থানায় আনা হয়েছিল। জিজ্ঞাসাবাদ করে তাদের ছেড়ে দেওয়া হয়েছে।

ডেইলি বাংলাদেশ/জেএইচএফ