বিয়ের রাতে ‘সেক্স’ নয়, বলছে গবেষণা

বিয়ের রাতে ‘সেক্স’ নয়, বলছে গবেষণা

স্বাস্থ্য ও চিকিৎসা ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১৪:৪৩ ৯ ফেব্রুয়ারি ২০১৯   আপডেট: ২১:১৮ ৯ ফেব্রুয়ারি ২০১৯

ফাইল ছবি

ফাইল ছবি

বিয়ে, এই শব্দ শুনলেই মনের মধ্যে এক অদ্ভুদ অনুভূতি কাজ করে। শুরুতে মনে হয়, সঙ্গী বা সঙ্গিনীকে নিয়ে নতুন এক জীবন। একে অপরকে ভালোবাসবে উজাড় করে। কিন্তু যত সহজভাবেই চিন্তা করেন না কেন, অনেক বিষয় আছে যা রক্ত হিম করে দেয়ার মতো।

ব্রিটেনের মেডএক্সপ্রেস নামের একটি প্রতিষ্ঠানের সাম্প্রতিক গবেষণায় বলা হয়, বিয়ের রাতে সেক্স বিষয়ে দারুণ দুশ্চিন্তায় থাকেন সদ্যবিবাহিত স্বামী-স্ত্রী। ৫৭ শতাংশ নারী বিয়ের রাতে যৌনকর্মে হতাশাজনক অভিজ্ঞতার কথা প্রকাশ করেছেন। 

যদি প্রত্যেক নারী-পুরুষের বিয়ের রাতের যৌনতা সত্যিকার অর্থেই দুশ্চিন্তা ও হতাশার কারণ হয়ে থাকে, তবে একেবারে সঠিক পরামর্শটিই দিয়েছেন বিশেষজ্ঞরা।

এর একটিই সমাধান। বিয়ের রাতে সেক্স না করাটাই সবচেয়ে ভালো। বাসর রাতের অপরিসীম আবেগ-অনুভূতিতে ভেসে যান। ফুলের বিছানা, জীবনসঙ্গীকে কাছে পাওয়া, একটা রোমান্টিক রাতের উষ্ণতা সবই উপভোগ করুন। এগুলো আজীবনের স্মৃতি হয়ে থাকবে। কিন্তু এ রাতে সেক্স থেকে দূরে থাকুন।

দুজনের জীবনের সবচেয়ে উত্তেজনাকর এবং আনন্দময় একটি রাত। সত্যিকার অর্থেই, নববধূ-বর তাদের আবেগের চরম পর্যায়ে বিচরণ করেন। জরিপের ৫ শতাংশ পুরুষ জানান, বিয়ের রাতে বউয়ের কান্না থামাতেই বেশির ভাগ সময় কেটে গেছে।

এমনিতেই বিয়ের গোটা দিনটি দারুণ পেরেশানিতে কাটে। আয়োজন, সামাজিকতা পালন ইত্যাদি কাজেই জামাই-বউ যথেষ্ট ক্লান্ত হয়ে পড়েন। 

এরপর সেক্সের মতো শক্তিক্ষয়ের কাজটি করতে বিরক্তই লাগার কথা। তাই সুস্থ মস্তিষ্কে যদি চিন্তা করে নিতে পারেন সঙ্গী-সঙ্গিনী, তবে রাতটি দারুণ আরামদায়ক ও উপভোগ্য হতে পারে।

এছাড়া অনেকেই মনে করেন, বিয়ের রাত মানেই স্বামী-স্ত্রীর সেক্স। আবার এ কাজের মাধ্যমেই বিয়ের বিষয়টা দুজনের মাঝে গ্রহণযোগ্যতা পায়। তবে আশার কথা হলো, বিয়ের রাতে সেক্স না করার বিষয়টিও যুগ যুগ ধরে সমর্থন পেয়ে আসছে। 

ঘরে প্রবেশ করেই জানালা-দরজা বন্ধ করে দেয়া বা পর্দা সরিয়ে যৌনকর্মের প্রস্তুতি নেয়ার মাধ্যমে এত সুন্দর রাতটাকে নষ্ট করাটা বোকামি ছাড়া আর কিছুই নয়।

ডেইলি বাংলাদেশ/টিএএস