Alexa বিয়ের প্রলোভনে তিন মাস ধর্ষণ, আটক ধর্ষক

বিয়ের প্রলোভনে তিন মাস ধর্ষণ, আটক ধর্ষক

সিলেট প্রতিনিধি  ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ২০:০০ ১৬ জানুয়ারি ২০২০   আপডেট: ২০:১৪ ১৬ জানুয়ারি ২০২০

মানিক। ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

মানিক। ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

ছোট বোনের নাম কল্পনা বেগম (ছদ্মনাম)। তার স্বামীর নির্যাতন থেকে বাঁচাতে বড় বোন মর্জিনা বেগম (ছদ্মনাম) পুলিশে ফোন করেন। 

খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছালে বেরিয়ে আসে চাঞ্চল্যকর তথ্য। জানা যায়, কল্পনার বোন জামাই একটি কিশোরীকে জোরপূর্বক আটকে রেখে তিনমাস ধরে ধর্ষণ করছে। 

পুলিশ ভিকটিমদের উদ্ধার করে ও মর্জিনার স্বামী শাহ আলম আহমদ মানিককে আটক করে। গত মঙ্গলবার সিলেটের দক্ষিণ সুরমার মোগলা বাজার এলাকায় এ ঘটনা ঘটেছে। 

আটক মানিক মৌলভীবাজার জেলার রাজনগর থানার নিজগাঁও গ্রামের আব্দুল খালেকের ছেলে। সে দক্ষিণ সুরমার মোগলাবাজার থানার জুবেল মিয়ার কলোনির একটি বাসায় ভাড়া থাকেন।

বৃহস্পতিবার সিলেট মহানগর পুলিশের অতিরিক্ত উপ পুলিশ কমিশনার (গণমাধ্যম) জেদান আল মুসা সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানিয়েছেন। 

তিনি জানান, গত মঙ্গলবার সন্ধ্যায় জনৈক এক নারী তার স্বামীর বিরুদ্ধে বোনকে আটকে রেখে নির্যাতন করার অভিযোগ করেন। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গেলে জানতে পারে ওই নারীর স্বামী আরেকটি কিশোরীকে তিনমাস আটকে রেখে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে ধর্ষণ করে আসছে। 

এ সময় ধর্ষক মানিককে আটক করে এবং ভিকটিম কিশোরীকে সিলেট এমএজি ওসমানী হাসপাতালের ওসিসিতে ভর্তি করে পুলিশ। এছাড়া মানিকের স্ত্রীকে তার সন্তানসহ বড় বোনের জিম্মায় দেয়া হয়েছে। 

মোগলাবাজার থানার ওসি আখতার হোসেন জানান, এ ঘটনায় মানিকের স্ত্রী মামলা দায়ের করেছে। পরে মানিককে গ্রেফতার দেখিয়ে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

ডেইলি বাংলাদেশ/জেডআর