Alexa বিশ্বে সাইবার অপরাধে মাদক ব্যবসার চেয়েও বেশি কামাচ্ছে হ্যাকররা

বিশ্বে সাইবার অপরাধে মাদক ব্যবসার চেয়েও বেশি কামাচ্ছে হ্যাকররা

টেক ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ০৫:২৫ ২৮ জুলাই ২০১৯   আপডেট: ০৫:২৬ ২৮ জুলাই ২০১৯

ফাইল ছবি

ফাইল ছবি

বিশ্বব্যাপী  ২০১৯ সালের প্রথম দিকে র‌্যানসামওয়্যারের আক্রমণ প্রচুর পরিমাণে বাড়িয়েছে হ্যাকাররা। এ কারণে সবচেয়ে ক্ষতির মুখে পড়ে যুক্তরাজ্য। এছাড়া বিশ্বের অন্যান্য অঞ্চলও ক্ষতির সম্মুখীন হয়। গেল বুধবার সাইবার নিরাপত্তা ফার্ম সনিকওয়াল প্রকাশিত এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে। খবর- কম্পিউটার উইকলি।

এদিকে বিশ্বের ২শ’টি দেশের সাইবার নিরাপত্তা বিষয়ক সরকারি এবং বেসরকারি সংস্থার দেয়া তথ্যের ভিত্তিতে সনিকওয়াল এক প্রতিবেদন তৈরি করেছে। 

এতে জানানো হয়, গেল বছরের শেষের দিকে ম্যালওয়্যারের আক্রমণ অনেকাংশে কমে যায়। এর বিপরীতে র‌্যানসামওয়্যারের আক্রমণ বাড়ানো হয়। এতে চলতি বছর হ্যাকাররা ছোট-বড় বাণিজ্যিক ওয়েবসাইটগুলোকে জিম্মি করে অর্থ আদায়ের পরিমাণ বাড়িয়েছে। এই প্রক্রিয়াকেই সাইবার এক্সটোরশন বলা হচ্ছে। এর মধ্যে চলতি বছরের প্রথমার্ধে যুক্তরাজ্যে যার পরিমাণ ১৯৫ শতাংশ বেড়েছে। 

যুক্তরাজ্যের ন্যাশনাল ক্রাইম এজেন্সির পরিচালক রব জোন্স জানান, এখন হ্যাকারদের মধ্যে সবচেয়ে বেশি জনপ্রিয় সাইবার এক্সটোরশন। ২০১৯ সালের প্রথমার্ধে বিশ্বব্যাপী ১১ কোটি ৯ লাখ বড় আকারের র‌্যানসমওয়্যারের আক্রমণ নথিবদ্ধ করা হয়। যার পরিমাণ বিগত ১৫ বছরের মধ্যে সবচেয়ে বেশি। তবে ভারত, জার্মানি এবং যুক্তরাষ্ট্রে এ ধরনের আক্রমণের সংখ্যা কমেছে যথাক্রমে ৬২, ৭১ এবং ২১ শতাংশ।

তিনি আরো বলেন, তবে কিছু দেশে ম্যালওয়্যারের আক্রমণ বেড়েছে। এদের মধ্যে ভারত (২৫%), সুইজারল্যান্ড (৭২%) এবং নেদারল্যান্ড (৩%) রয়েছে।

এদিকে বিবিসি জানিয়েছে, বিশ্বব্যাপী র‌্যানসামওয়্যারের মাধ্যমে আদায় করা অর্থের পরিমাণ বৈশ্বিক মাদক ব্যবসার বার্ষিক পরিধি ছাড়িয়েছে।

প্রসঙ্গত, বিশ্বে ২০০৩ সালে মাদকের ৩২ হাজার ১৬০ কোটি ডলারের অবৈধ বাজার ছিলো। জাতিসংঘের মাদক ও অপরাধ দমন সংস্থা ইউনোডকের মতে, শুধু ২০১৮ সালেই ৮ হাজার ৮শ কোটি ডলারের বৈশ্বিক কোকেনের বাজার ছিলো। 

ডেইলি বাংলাদেশ/জেডআর


 

Best Electronics
Best Electronics