বিশ্বে এমন প্লে-বয় আর নেই! নারী-বন্দুক-অর্থই যেন তার পরিচয়

বিশ্বে এমন প্লে-বয় আর নেই! নারী-বন্দুক-অর্থই যেন তার পরিচয়

বিনোদন ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১৩:২৩ ১৩ আগস্ট ২০২০   আপডেট: ১৩:২৮ ১৩ আগস্ট ২০২০

অনেকের মতে তিনি বিশ্বের এক নম্বর প্লে-বয়। ছবি: ইনস্টাগ্রাম

অনেকের মতে তিনি বিশ্বের এক নম্বর প্লে-বয়। ছবি: ইনস্টাগ্রাম

ড্যান বিলজেরিয়ান—তাকে বলা হয় ইনস্টাগ্রামের রাজা। নারী, টগবগে উত্তেজনা, অ্যাডভেঞ্চার, অর্থ আর বন্দুক, এটাই বিলজেরিয়ানের পরিচয়। অনেকেই তাকে বিশ্বের এক নম্বর প্লে-বয় হিসেবে চেনেন। এছাড়া টুইটার থেকে সবচেয়ে রসিক পোকার প্লেয়ারের খেতাবও পেয়েছেন তিনি।

বিলজেরিয়ানের জন্ম যুক্তরাষ্ট্রের ফ্লোরিডায়। ৩৯ বছর বয়সি ড্যানের বাবা ছিলেন কর্পোরেট জগতের কুখ্যাত প্রতারক; তার নাম পল বিলজেরিয়ান। পল ছেলেকে এতটাই অর্থ দিয়েছেন, তা দিয়ে মার্কিন ফেডারেল রিজার্ভ ব্যাংক-এর কোষাগারের একটা অংশ ভর্তি হয়ে যাবে।

ড্যান নিজে পেশাদার জুয়াড়ি। জুয়া খেলা কতটা গৌরবের সে প্রশ্ন থাক। ড্যান কিন্তু এই পেশায় মোটা অংকের টাকা কামিয়েছেন। সঙ্গে পোকার খেলোয়াড় হিসেবে অর্জন করেছেন সুনামও। পোকার বিভিন্ন টুর্নামেন্টে তাকে নিয়ে যাওয়া হয় অতিথি হিসেবে।

বিশ্ব সেরা সুন্দরীদের নিয়ে প্রাসাদে অবকাশযাপন করেন তিনি

২০১৩ সালে বিলজেরিয়ানের পোস্ট করা ছবি প্রথম সমালোচনার কেন্দ্রে আসে। তার বিলাসবহুল জীবন, বিশ্ব সেরা সুন্দরীদের নিয়ে প্রাসাদে অবকাশযাপন ও মাদকের প্রতি আসক্তি তাকে সোশ্যাল মিডিয়ায় পরিচিত মুখ করে তুলতে শুরু করে।

মাত্র ৩২ বছর বয়সেই মাদকের নেশার খপ্পরে তিনবার হৃদরোগে আক্রান্ত হন ড্যান বিলজেরিয়ান। মদ্যপান করে মডেলদের সঙ্গে ঘোরাঘুরি করে একাধিকবার গ্রেফতার হয়েছেন পুলিশের হাতে। আমেরিকার প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে প্রার্থী হবেন বলেও এক সময় ঘোষণা দিয়েছিলেন ড্যান বিলজেরিয়ান।

২০০০ সালে মার্কিন নৌবাহিনীর সিল প্রশিক্ষণ নিতে গিয়ে ব্যর্থ হন। তখন থেকেই আগ্নেয়াস্ত্রের প্রতি অগাধ ভালোবাসা! নারী যেমন বিলজেরিয়ানের ভালোবাসা, তেমনি বন্দুক তার নেশা। বিলজেরিয়ানের কাছে রয়েছে বিশাল অস্ত্রাগার। এমনকি নারীদেরকে বন্দুক চালানো শেখানো বিলজেরিয়ানের অন্যতম শখ।

বিলজেরিয়ানের বেশ কয়েকটি বিমান রয়েছে, যা দিয়ে ঘুরে বেড়া বিশ্ব

স্টান্টম্যান হিসাবে হলিউডের বেশকিছু সিনেমায় অভিনয় করেছেন বিলজেরিয়ান। স্টান্টম্যান হিসাবে ‘অলিম্পাস হ্যাজ ফলেন’, ‘লন সারভাইভার’, ‘দ্য আদার ওমেন’-এর মতো ছবিতে অভিনয় করেছেন। অসংখ্য পরিচালক থেকে লাইফস্টাইল ম্যাগাজিনের সম্পাদক তার পেছনে এখনো ঘুরে বেড়ান।

বিলজেরিয়ানের অপকর্মেরও শেষ নেই। একবার বোমা তৈরির অভিযোগে লস অ্যাঞ্জেলেস বিমানবন্দের গ্রেফতার হন তিনি। মিয়ামি নাইটক্লাবে এক বিখ্যাত মহিলা মডেলের মুখে লাথি মেরেছিলেন বিলজেরিয়ান। পরে ১ মিলিয়ন মার্কিন ডলারে সেই সমস্যা মেটাতে হয়।

একবার পর্ণতারকা জেনিস গ্রিফিথকে ছাদ থেকে সুইমিং পুলে ছুঁড়ে ফেলতে গিয়ে বিতর্কে জড়িয়েছিলেন বিলজেরিয়াান। জেনিস পুলের গাঁ ঘেষে পড়ায় পায়ের আঙুল ভাঙে। ‘আক্ট অফ গড’ বলে জেনিসকে ক্ষতিপূরণ দেয়া হয়নি। বর্তমানে ইনস্টাগ্রামে বিলজেরিয়ানের ফলোয়ার-এর সংখ্যা ৩২.২ মিলিয়ন।

ডেইলি বাংলাদেশ/এনকে