বিশ্বের সবচেয়ে দামি আম, এক কেজি কিনতে ঢোঁক গিলেন ধনী ব্যক্তিও!

বিশ্বের সবচেয়ে দামি আম, এক কেজি কিনতে ঢোঁক গিলেন ধনী ব্যক্তিও!

আন্তর্জাতিক ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ২০:০৩ ২৭ মে ২০২০  

তাইও নো তামাগো’ প্রজাতির আম

তাইও নো তামাগো’ প্রজাতির আম

গন্ধ আর স্বাদে অতুলনীয় ফলের রাজা আম। স্বাদ, আকৃতি বা জাতের ভিন্নতার মতোই বিভিন্ন দামের আম বিশ্বজুড়ে রয়েছে। দক্ষিণ এশিয়ায় বেশি দামের আমের উৎপাদন নেই। তবে এশিয়ার মধ্যেই রয়েছে বিশ্বের সবচেয়ে দামি আমের উৎপাদন। ওই দামি আম এক কেজি কিনতে গিয়ে ঢোঁক গিলতে হয় ধনী ব্যক্তিদেরও। 

দামি আমের জাতের নাম ‘তাইও নো তামাগো’। যার মানে দাঁড়ায় ‘Egg of the sun’। এ প্রজাতির আমই বিশ্বে সব থেকে দামি। এটি জাপানের মায়াজাকি অঞ্চলে চাষ হয়। বিক্রি হয় অবশ্য গোটা জাপান জুড়ে। প্রতি বছর প্রথম ফলন করা আম নিলামের মাধ্যমে আকাশছোঁয়া দামে বিক্রি হয়। এ আমের ফলন অন্যান্য আমের মতো হয় না। অর্ডারের উপর নির্ভর করেই এ জাতের আমের ফলন হয়। 

‘তাইও নো তামাগো’ প্রজাতির আম অর্ধেক লাল, অর্ধেক হলুদ। জাপানে গরম ও শীতের মাঝে এই প্রজাতির আমের ফলন হয়। আর সেই জন্যই এ আমের দাম এমন চড়া।

২০১৭ সালে এ প্রজাতির দুটি আম নিলামের মাধ্যমে ৩৬০০ ডলারে বিক্রি হয়। অর্থাৎ প্রায় দুই লাখ ৭২ হাজার টাকা। তখন প্রতিটি আমের ওজন ৩৫০ গ্রাম ছিল। অর্থাৎ মাত্র ৭০০ গ্রাম আমের দাম দুই লাখ ৭২ হাজার টাকা।

আকাশছোঁয়া দামের এ প্রজাতির আম চাষে বিরাট কাঠখড় পুড়াতে হয় কৃষকদের। সাবধানতার ওপর সাবধানতা অবলম্বন করতে হয়। গাছে মুকুল থেকে আম এলেই ছোট জালে জড়িয়ে রাখতে হয়। তারপর নির্দিষ্ট অবস্থানে আমগুলো রাখা হয়। কারণ সূর্য্যের আলো আমের নির্দিষ্ট অংশে পড়ে। এ জাতের আমকে মাটিতে পড়তে দেয়া হয় না। বিশেষ পদ্ধতি ব্যবহার করে আমের এক পাশে রুবি রেড রঙে রাঙানো হয়। যেমন দাম তেমনি আমের জাতটির স্বাদ ও গন্ধ।

সূত্র- দ্যা টেলিগ্রাফ ও ইন্টারনেট

ডেইলি বাংলাদেশ/এমকেএ