চালু হচ্ছে বিশ্বের সবচেয়ে উঁচু রেল সেতু

চালু হচ্ছে বিশ্বের সবচেয়ে উঁচু রেল সেতু

আন্তর্জাতিক ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ২১:১১ ২ আগস্ট ২০২০   আপডেট: ২১:১১ ২ আগস্ট ২০২০

ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

ভারত নিয়ন্ত্রিত জম্মু-কাশ্মীরে বিশ্বের সবচেয়ে উঁচু সেতুটি আগামী বছরের মধ্যে প্রস্তুত হয়ে যাবে। রোববার দেশটির কর্মকর্তারা এ তথ্য জানিয়েছেন। 

ভারতের উচ্চপদস্থ এক কর্মকর্তা জানান, দেশটির চিনাব নদীর ওপর নির্মাণাধীন এটিই হবে বিশ্বের সবচেয়ে উঁচু সেতু। দিল্লির বিখ্যাত কুতুব মিনারের উচ্চতা ৭২ মিটার এবং প্যারিসের আইফেল টাওয়ারের উচ্চতার (৩২৪ মিটার) চেয়েও ৩৫ মিটার বেশি উঁচু কাশ্মীরের এই সেতু।

তিনি আরো বলেন, গত এক বছরে কেন্দ্রীয় সরকারের শীর্ষ পর্যায়ের প্রত্যক্ষ তত্ত্বাবধানে সেতুটির নির্মাণকাজ ত্বরান্বিত করা হয়েছে। এটি নির্মিত হলে ২০২২ সালের মধ্যে প্রথমবারের মতো ট্রেনযোগে ভারতের অন্যান্য অংশের সঙ্গে কাশ্মীর উপত্যকার যোগাযোগ স্থাপিত হবে।

ভারতীয় গণমাধ্যম সূত্রে জানা গেছে, এই সেতুটির কেন্দ্রীয় স্প্যান রয়েছে ৪৬৭ মিটারের। এ স্পেন চিনাব নদীর তলদেশ থেকে ৩৫৯ মিটার উচ্চতায় নির্মিত হচ্ছে। কাশ্মীরের এই সেতুতে বাতাসের সর্বোচ্চ গতিবেগ ঘণ্টায় ২৬৬ কিলোমিটার নকশা করা হয়েছে। এই সেতু ট্রেন ও যাত্রীদের ওপর নজর রাখতে অনলাইন মনিটরিংয়ে ব্যবস্থা থাকবে। এছাড়া সেতুর সঙ্গে থাকবে ফুটপাথ ও সাইকেল চালানোর রাস্তা।

পরিকল্পনা অনুযায়ী, ২০২২ সালের ডিসেম্বরের মধ্যে কাশ্মীর ট্রেন যোগাযোগের সঙ্গে সংযুক্ত হবে। এ লক্ষ্যে উধমাপুর-কাটরা (২৫ কিলোমিটার), বানিহাল-কাজিগুন্দ (১৮ কিলোমিটার) এবং কাজিগুন্দ-বারামুল্লা (১১৮ কিলোমিটার) সেকশনকে সেতুর সঙ্গে সংযুক্ত করার কাজ ইতোমধ্যে সম্পন্ন হয়েছে। অবশিষ্ট ১১১ কিলোমিটারের কাটরা-বানিহাল সেকশনের কাজ সম্পন্ন করার প্রক্রিয়া চলমান রয়েছে। ২০২২ সালের ডিসেম্বরের মধ্যে এই কাজ শেষ করার লক্ষ্য নির্ধারণ করা হয়েছে। সেতুটির কাটরা-বানিহাল সেকশনের ১৭৪ কিলোমিটার টানেলের মধ্যে ইতোমধ্যে ১২৬ কিলোমিটারের নির্মাণ কাজও শেষ হয়েছে।

কাশ্মীরের এই সেতু স্টিল দিয়ে তৈরি করা হচ্ছে। মাইনাস ২০ ডিগ্রি তাপমাত্রাতেও যাতে সেতুটি ঠিক থাকতে পারে সেজন্য স্টিল সেতু তৈরি হচ্ছে। 

ডেইলি বাংলাদেশ/জেডআর