Alexa বিনা খরচে ফুকেট ঘুরুন!

বিনা খরচে ফুকেট ঘুরুন!

ভ্রমণ ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১১:১৪ ১৩ জুলাই ২০১৯  

ছবি : সংগৃহীত

ছবি : সংগৃহীত

আন্দামান সাগরের তীরে থাইল্যান্ডের পশ্চিম সীমান্তে অবস্থিত পর্যটন নগরী ফুকেট। এই শহর দিবা রাত্রি হাজারো পর্যটকের পদচারণায় মুখর থাকে। এর চারিদিকে রয়েছে ছড়ানো ছিটানো অনেক ছোট ছোট দ্বীপমালা। সবই অপরূপ প্রাকৃতিক সৌন্দর্যে ভরপূর। এই জায়গাগুলো ঘুরতে দরকার কাড়ি কাড়ি টাকা। তবে এমন কিছু জায়গা রয়েছে সেগুলোর সৌন্দর্য উপভোগ করতে কোনো টাকা বাড়তি খরচ করতে হবে না। শুধু মাত্র যাতায়াত এবং খাবার বাবদ খরচ হবে।

ফুকেটের সমুদ্র সৈকত

ফুকেটে বিনা খরচে ঘোরার কথা বললেই প্রথমে উঠে আসে সমুদ্র সৈকতের কথা। কয়েকটি প্রাইভেট সৈকত ছাড়া অন্য সবগুলো সৈকতই সবার জন্য উম্মুক্ত। এই সব সৈকতগুলোতে ঘুরে বেড়াতে বা অলস সময় কাটাতে কোনো টাকা পয়সা লাগবে না। সমগ্র সৈকত জুড়ে ছাতা যুক্ত ডিভান রয়েছে, যেখানে শুয়ে-বসে থাকতে কোনো খরচ নেই।

ফুকেট শহর

ফ্রোমথেপ কেপ বাতিঘর

ফ্রোমথেপ কেপ হল ফুকেটের অন্যতম সেরা একটি ল্যাণ্ডমার্ক। ছবি তোলার জন্য দারুণ এক জায়গা! এখানে একটি বাতিঘর আছে। এর ভেতরে অনেক পুরনো দিনের বিভিন্ন ঐতিহাসিক সামগ্রী রাখা আছে। এছাড়া বাতিঘরের ভেতর থেকে আশেপাশের দৃশ্য তো দেখতে পাবেনই। চমৎকার এই অভিজ্ঞতা আপনি পেতে পারেন বিনা খরচেই।

নক্কার্ড পাহাড়ের মূর্তি

ফুকেটের পাহাড়ের উপর যে বিশাল বুদ্ধের মূর্তি রয়েছে তা শহরের মধ্যে সর্ববৃহৎ। এত বড় স্থাপনা যে বিনা খরচেই দেখতে পাবেন সে কথা বলাই বাহুল্য। এমনি কি কয়েক মাইল দূর থেকেও প্রায় ৪৫ ফুট উঁচু এই স্থাপনাটি দেখতে পাবেন। শুধু মূর্তিই না, এখানকার পরিবেশও দেখার মত। এখানকার পাহাড়ের চুড়া থেকে যে প্যানরমিক দৃশ্য দেখতে পারবেন, তা আপনাকে মুগ্ধ করবেই।

ফুকেট শহর

ফুকেট শহরটাই তো দেখার মতো! এর অংশ জুড়ে রয়েছে শপিং মল। পুরাতন এই শহরের আনাচে কানাচে ছড়িয়ে আছে দেখার মত অনেক জিনিস। শুধু সমুদ্র সৈকত আর ক্লাব নিয়েই ফুকেট না, এর নিজস্ব একটা জীবনধারাও আছে। সেটার সঙ্গে নিজেকে পরিচিত করতে পারবেন যদি শহরটি হেঁটে বেড়ান।

ডেইলি বাংলাদেশ/এনকে

Best Electronics
Best Electronics