Alexa বিনামূল্যের বিদ্যুৎ সংযোগে ‘সম্মানী’ নেন ঠিকাদার

বিনামূল্যের বিদ্যুৎ সংযোগে ‘সম্মানী’ নেন ঠিকাদার

মোহাম্মদ সোহেল, নোয়াখালী ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১৬:০০ ১২ জুন ২০১৯  

ফাইল ছবি

ফাইল ছবি

নোয়াখালীতে ঘুষ ছাড়া মিলছে না বিদ্যুৎ সংযোগ। প্রত্যেক গ্রাহকের কাছ থেকে ‘সম্মানী’ হিসেবে ঘুষ নিচ্ছে ঠিকাদাররা। কর্তৃপক্ষ ব্যবস্থা না নেয়ায় ক্ষুব্ধ পশ্চিম এওজবালিয়া গ্রামের দুই শতাধিক গ্রাহক।

নোয়াখালী পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির তত্ত্বাবধায়নে ওই গ্রামের ২০২ জন গ্রাহককে আবাসিক বিদ্যুৎ সংযোগ দেয়ার প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে। শুরু থেকেই সোনাপুর পল্লী বিদ্যুৎ অফিসের ইলেক্টিশিয়ান রমিজ উদ্দিন, সুফি উল্যার ওরফে সুফি মেম্বারের বিরুদ্ধে গ্রাহকদের কাছ থেকে ঘুষ নেয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে। যারা টাকা দিতে পারছেন না, তাদের সংযোগ না দেয়ার হুমকি দেয়া হচ্ছে। এছাড়া বিদ্যুতের মিটার, তার, খুঁটি নিয়েও বাণিজ্যের অভিযোগ করেছেন ভুক্তভোগী গ্রাহকরা।

ভুক্তভোগী মো. হারুন জানান, তিনি বিদ্যুৎ সংযোগ পেতে রমিজ উদ্দিনকে সাড়ে ৯ হাজার টাকা ঘুষ দিয়েছেন।

একই গ্রামের দুলাল ব্যাপারী জানান, ৯ হাজার টাকা দেয়ার পর আরো টাকা চেয়ে চাপ প্রয়োগ করছে রমিজ উদ্দিন ও সুফি মেম্বার।

ঘুষ নেয়াকে সম্মানী হিসেবে দেখছেন অভিযুক্ত রমিজ উদ্দিন ও সুফি উল্যা। তারা জানান, সঠিক সময়ে কাজ করাতে অফিস ও ঠিকাদারকে সম্মানী দিতে হয়। তাই গ্রাহকদের কাছ থেকে ৪-৫ হাজার টাকা করে নেয়া হচ্ছে।

পল্লী বিদ্যুতের সোনাপুর জোনাল অফিসের ডিজিএম মো. জহিরুল করিম বলেন, বিদ্যুৎ সংযোগ প্রক্রিয়া শুরু হওয়ার আগেই দালাল চক্রের সসঙ্গে গ্রাহকদের আর্থিক লেনদেন না করতে পোস্টার, ব্যানার, মাইকিং করা হয়েছে। এরপরও কেউ আর্থিক লেনদেনে জড়িত থাকলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।

ডেইলি বাংলাদেশ/এআর