বিমান বিধ্বস্তের আগে সতর্ক বার্তা জানিয়েছিলেন পাইলট

বিমান বিধ্বস্তের আগে সতর্ক বার্তা জানিয়েছিলেন পাইলট

আন্তর্জাতিক ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১৩:৩৬ ২৩ মে ২০২০   আপডেট: ১৩:৩৭ ২৩ মে ২০২০

ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

করাচিতে পাকিস্তান ইন্টারন্যাশনাল এয়ারলাইন্সের (পিআইএ) যাত্রীবাহী বিমান বিধ্বস্ত হয়ে ৯৭ জন নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন আরো অনেকে। পাইলটের সঙ্গে এয়ার ট্রাফিক কন্ট্রোলের (এটিসি) শেষ মুহূর্তের কথোপকথনের রেকর্ড প্রকাশিত হয়েছে। সেখানে বিমানটির ইঞ্জিন আকস্মিক বিকল হয়ে যাওয়া নিয়ে সতর্ক বার্তা দিয়েছিলেন পাইলট। এ থেকে ধারণা করা হচ্ছে, যান্ত্রিক গোলযোগের কারণেই বিধ্বস্ত হয়েছে বিমানটি।

বিমানবন্দরের খুব কাছে থাকলেও সেখানে অবতরন করার আগেই বিমানটি একটি আবাসিক এলাকায় মোবাইল টাওয়ারের সঙ্গে ধাক্কা খেয়ে বাড়ির ওপর ভেঙে পড়ে। আর সঙ্গে সঙ্গে আগুন ধরে যায় সেটিতে।

পাকিস্তানি সংবাদমাধ্যম জানিয়েছে, শেষ মুহূর্তে এ৩২০ এয়ারবাসের পাইলটের কথার যে রেকর্ডিং পাওয়া গেছে, তাতে তাকে ‘মে ডে, মে ডে! দুটো ইঞ্জিন নষ্ট হয়ে গেল!’ বলে চিৎকার করতে শোনা গেছে।

‘মে ডে’ হচ্ছে অ্যাভিয়েশনের একটি কোড। প্লেন চালানোর সময় বড় বিপদের মুখে এই কোড ব্যবহার করেন পাইলটরা। এদিনও প্লেন বিধ্বস্তের আগে তেমনই বার্তা গিয়েছিল এটিসি’তে।

পাকিস্তানি সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত পিআইএ’র পাইলট ও এটিসির শেষ মুহূর্তের কথোপকথন তুলে ধরা হলো-

পাইলট: পিকে ৮৩০৩ অ্যাপ্রোচ।

এটিসি: জি স্যার।

পাইলট: আমরা বাম দিকে যাব, তাই তো?

এটিসি: ঠিক তাই।

পাইলট: আমরা যাচ্ছি… দু’টো ইঞ্জিন নষ্ট হয়ে গেল!

এটিসি: বেলি ল্যান্ডিং করা হচ্ছে তো?

পাইলট: (গলার স্বর অস্পষ্ট)

এটিসি: রানওয়ে ২ আর ৫ রেডি আছে!

পাইলট: রজার।

পাইলট: স্যার! মে ডে, মে ডে, মে ডে, পাকিস্তান ৮৩০৩!

এটিসি: পাকিস্তান ৮৩০৩, রজার স্যার। দুটো রানওয়েই রেডি আছে।

ডেইলি বাংলাদেশ/মাহাদী