বিদেশি ক্রিকেটারদের পাওনা পরিশোধে বিসিবি’র আশ্বাস

বিদেশি ক্রিকেটারদের পাওনা পরিশোধে বিসিবি’র আশ্বাস

স্পোর্টস ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১৪:০৯ ৪ আগস্ট ২০২০  

বিদেশি ক্রিকেটারদের পাওনা পরিশোধে বিসিবি’র আশ্বাস

বিদেশি ক্রিকেটারদের পাওনা পরিশোধে বিসিবি’র আশ্বাস

ক্রিকেট বিশ্বে বেশ জনপ্রিয়তা পেয়েছে চলমান ঘরোয়া টি-টোয়েন্টি লিগগুলো। তবে পারিশ্রমিক না পাওয়া অথবা দেরিতে পারিশ্রমিক পাওয়ার সমস্যায় পড়ছেন লিগগুলোতে খেলা অন্তত এক-তৃতীয়াংশ ক্রিকেটার।  আন্তর্জাতিক ক্রিকেটারদের সংগঠন ‘ফেডারেশন অব ইন্টারন্যাশনাল ক্রিকেটারস অ্যাসোসিয়েশনের (ফিকা) বার্ষিক প্রতিবেদনে এই তথ্য উঠে এসেছে। তালিকাভুক্ত সেই ৬টি লিগের মধ্যে আছে বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ-বিপিএলও। অভিযুক্ত হওয়ায় বিদেশি ক্রিকেটারদের অর্থ পরিশোধের আশ্বাস দিলো দেশের ক্রিকেটের অভিভাবক সংস্থা বিসিবি। 

জানা গেছে, ২০১৮-১৯ বিপিএলে উইন্ডিজ ব্যাটসম্যান নিকোলাস পুরান ও আফগানিস্তানের ক্রিকেটার গুলবাদিন নাইবের পুরো অর্থ পরিশোধ করেনি সিলেট সিক্সার্স। পুরানকে ৩৫ হাজার ডলার (ট্যাক্স ছাড়া) দেয়ার কথা থাকলেও মাত্র ১০ হাজার ডলার পেয়েছেন তিনি। অন্যদিকে ৩২ হাজার ডলারের পুরোটাই বাকি নাইবের। এ অবস্থায় বারবারই তারা যোগাযোগ করেছেন ফ্র্যাঞ্চাইজি ও বিসিবির সঙ্গে। 

সোমবার ভারতভিত্তিক ক্রিকেট গণমাধ্যম ক্রিকইনফোকে বিপিএলে ক্রিকেটারদের বেতন বাকি থাকার বিষয়টি স্বীকার করেছেন বিসিবি’র প্রধান নির্বাহী নিজামউদ্দিন চৌধুরী সুজন। 

তিনি বলেন, এটি বিসিবির জন্য বড় একটা চিন্তার বিষয়। আমরা বিষয়টাকে বেশ গুরুত্বের সঙ্গে দেখছি কারণ এর দায়টা বিসিবির কাঁধেও বর্তায়। আমরা জানতে পেরেছি কয়েকটি ফ্র্যাঞ্চাইজি তাদের ক্রিকেটারদেরকে পুরোপুরি অর্থ পরিশোধ করেনি। ক্রিকেটারদের এজেন্টরা আমাদেরকে এ বিষয়ে বারবার তাগাদা দিয়েছে। আমরা ক্রিকেটার এবং ফ্র্যাঞ্চাইজি দুই পক্ষের সঙ্গে কথা বলে সঠিক অংকটা জানার চেষ্টা করছি। এরপর যেসব ফ্র্যাঞ্চাইজি অর্থ পরিশোধ করেনি তাদের বিরুদ্ধে আমরা পদক্ষেপ নিবো।

গত কয়েক মৌসুম পেমেন্ট বাকি থাকার ঝামেলার কারণে গেল মৌসুমে পুরোপুরি নিজেদের অর্থায়ন ও তত্ত্বাবধানে বিপিএল আয়োজন করে বিসিবি। গেল আসরের পুরো অর্থ পরিশোধ করা হয়েছে জানিয়ে বিসিবি’র প্রধান নির্বাহী বলেন, কিছুটা দেরি হয়েছে, তবে গত আসরের সব টাকা আমরা পরিশোধ করেছি। 

ফিকাহর প্রতিবেদনে বলা হয়, সাম্প্রতিক সময়ে ৬টি লিগে পারিশ্রমিকজনিত সমস্যায় পড়েছেন খেলোয়াড়রা। এ তালিকায় আইসিসি পূর্ণাঙ্গ সদস্য দেশগুলোর মধ্যে রয়েছে শুধুমাত্র বিপিএলের নাম। এছাড়া অন্য ৫টি টুর্নামেন্ট হলো, কানাডার গ্লোবাল টি-টোয়েন্টি লিগ, আবুধাবি টি-টেন, ইউরো টি-টোয়েন্টি স্ল্যাম, কাতার টি-টেন এবং মাস্টার চ্যাম্পিয়নস লিগ।

পারিশ্রমিকের এই সমস্যা সমাধানে আইসিসিকে তাগাদা দিয়েছে ফিকা। ক্রিকেটারদের স্বার্থরক্ষাবিষয়ক এ সংগঠনটি এবার পারিশ্রমিকের এই সমস্যাকে হালকাভাবে ছেড়ে দিচ্ছে না। 

ফিকার প্রধান নির্বাহী টম মোফাত বলেন, খেলোয়াড়রা শুধু মনের খোরাক মেটাতেই খেলেন না। তাদের জীবনও চালাতে হয়। অতি দ্রুত খেলোয়াড়দের চুক্তি লঙ্ঘন ও পারিশ্রমিক না দেয়ার বিষয়গুলো চিহ্নিত করতে হবে। এ বিষয়ে আইসিসিকেই যথাযথ পদক্ষেপ নেয়ার জন্য আমরা তাগিদ দিয়েছি। 

ডেইলি বাংলাদেশ/আরএস