Alexa অবৈধ বালু ব্যবসায়ীদের খবর প্রকাশে সাংবাদিককে হত্যার হুমকি

অবৈধ বালু ব্যবসায়ীদের খবর প্রকাশে সাংবাদিককে হত্যার হুমকি

শরনখোলা (বাগেরহাট) প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১৩:২৬ ২২ জানুয়ারি ২০২০   আপডেট: ১৩:২৯ ২২ জানুয়ারি ২০২০

মো. হাসানুজ্জামান পারভেজ। ছবি: ডেইলি ‍বাংলাদেশ

মো. হাসানুজ্জামান পারভেজ। ছবি: ডেইলি ‍বাংলাদেশ

বাগেরহাটের শরনখোলার কতিপয় অবৈধ বালু ব্যবসায়ীদের বিরুদ্ধে খবর প্রকাশ করায় এক সাংবাদিককে হত্যার হুমকি দিয়েছেন উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান মো. হাসানুজ্জামান পারভেজ।

সোমবার সন্ধ্যায় শরণখোলা প্রেসক্লাবের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও অনলাইন নিউজ পোর্টাল ডেইলি বাংলাদেশ-এর শরনখোলা প্রতিনিধি এমাদুল হক শামীমকে হত্যার এ হুমকি দেয়া হয়। 

জানা গেছে, ওই বালু ব্যবসায়ীদের পক্ষ নিয়ে মুঠোফোনে মো. হাসানুজ্জামান পারভেজ এ হুমকি দেন। এ ঘটনায় জীবনের নিরাপত্তা চেয়ে শরনখোলা থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেছেন এমাদুল হক শামীম। এছাড়া বিষয়টি শরনখোলার ইউএনওকেও তাৎক্ষণিক অবগত করেছেন তিনি। 

সাংবাদিক এমাদুল হক শামীম জানান, বন বিভাগের অনুমতি ছাড়া পূর্ব সুন্দরবনের ভোলা নদী থেকে ড্রেজারের মাধ্যমে স্থানীয় কতিপয় অসাধু ব্যবসায়ী অবৈধভাবে কয়েকদিন ধরে বালু তুলছিলেন। এ বিষয়ে গত ১৮ জানুয়ারি সংশ্লিষ্টদের সঙ্গে আলাপ করে একটি প্রতিবেদন তৈরি করা হয়। যা পরবর্তীতে ডেইলি বাংলাদেশসহ কয়েকটি পত্রিকায় ছাপা হয়। ওই বালু ব্যাবসায়ীদের মধ্যে ভাইস চেয়ারম্যানের ভাই তারেক রয়েছেন। 

তিনি আরো জানান, সোমবার আনুমানিক সন্ধ্যা ৭টা ২০ মিনিটের সময় আমার মুঠোফোনে কল দিয়ে অকথ্য ভাষায় গালাগাল শুরু করেন মো. হাসানুজ্জামান পারভেজ।  এ সময় তিনি বলেন, তোকে মেরে ফেলা হবে। ভবিষ্যতে তুই আমার নামে লেখার আগে সাত বার চিন্তা করবি। আমি কত খারাপ লোক তা তোদের জানা নাই। তোর প্রেস ক্লাবের গুষ্টি কিলাই। তুই আমার সামনে পড়বি না, তাহলে আস্তা রাখব না। আর এসব কথা বলে আমার কোনো কথা না শুনেই তিনি ফোনটি কেটে দেন। 

এদিকে উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যানের এমন আচরণে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন  শরনখোলায় কর্মরত সাংবাদিকরা। মো. হাসানুজ্জামান পারভেজের এ আচারনের তীব্র নিন্দা জানিয়ে বিষয়টির সুষ্ঠু তদন্ত ও বিচারের দাবি জানিয়েছেন তারা। 

অভিযোগ রয়েছে, এর আগেও প্রেস ক্লাবের সাবেক সভাপতি বাবুল দাস এবং সম্পাদক হুমায়ুন কবিরসহ অনেক সংবাদকর্মীর সঙ্গে ক্ষমতার প্রভাব খাটিয়ে খারাপ আচারণ করেছেন মো. হাসানুজ্জামান পারভেজ। তবে এ বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি দাবি করেন, তাকে কোনো হুমকি দেয়া হয়নি। বিষয়টি জানতে চেয়েছিলেন মাত্র। 

এ ঘটনায় শরনখোলা থানার ওসি এস কে আব্দুল্লাহ আল সাইদ বলেন, তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা নেয়া হবে। এছাড়া শরনখোলার ইউএনও সরদার মোস্থফা শাহিন বলেন, বিষয়টি সম্পর্কে আমি অবগত আছি।

ডেইলি বাংলাদেশ/জেডআর