বাবার সামনে গাছের সঙ্গে বেঁধে দুই ছেলেকে নির্যাতন

বাবার সামনে গাছের সঙ্গে বেঁধে দুই ছেলেকে নির্যাতন

সিরাজগঞ্জ প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ২০:১৭ ৩ এপ্রিল ২০২০  

ঘরে ভাঙচুর ও নির্যাতনের সময় (ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ)

ঘরে ভাঙচুর ও নির্যাতনের সময় (ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ)

সিরাজগঞ্জের সলঙ্গায় বাবার সামনে গাছের সঙ্গে বেঁধে দুই ছেলেকে নির্যাতন করা হয়েছে। নির্যাতনের একটি ভিডিও ফেসবুকে ভাইরাল হয়।

শুক্রবার সকালে উপজেলার নলকা ইউপির কেসি ফরিদপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। দুপুরে এ ঘটনায় চারজনকে আটক করেছে পুলিশ। এ ঘটনায় আটজনের নাম উল্লেখসহ অজ্ঞাত ৪-৫ জনের বিরুদ্ধে থানায় মামলা করেছেন ভুক্তভোগী হোসেন আলী।

আটকরা হলেন- ওই গ্রামের হরমুজ আলীর ছেলে দলিউর রহমান দুলাল, গোলাম কিবরিয়া, হাছেন আলীর ছেলে আব্দুল হালিম ও আব্দুল খালেকের ছেলে সুমন মাহমুদ।

সলঙ্গা থানার ওসি তাজুল হুদা জানান, কেসিফরিদপুর গ্রামের হোসেন আলীর পৈত্রিক বসতবাড়িসহ জায়গা-জমি নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে একই গ্রামের দলিউর রহমান দুলাল, হাফেজ আলী, খায়রুল ইসলাম, কামরুল ইসলাম, ওমর ফারুক, আব্দুল হালিম ও মাহফুজুর রহমানের সঙ্গে বিরোধ চলছিল। এরই জেরে শুক্রবার সকালে দুলালের নেতৃত্বে ভাড়াটে লোকজন দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে হোসেন আলীর বসতবাড়ি দখলের চেষ্টা চালায়।

ওসি আরো জানান, দখলের সময় হোসেন আলীর ছেলে সুলতান মাহমুদ ও রুবেল হোসেন বাধা দেয়। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে তাদের দুইজনকে গাছের সঙ্গে রশি দিয়ে বাঁধার নির্দেশ দেন দুলাল। পরে তাদের বেঁধে ভাড়াটে লোকজন মধ্যযুগীয় কায়দায় নির্যাতন করে। এছাড়া তারা হোসেন আলীর ঘরে ঢুকে স্ত্রী আমিনা খাতুনকে মারধর ও ভাঙচুর করে।

ডেইলি বাংলাদেশ/এমআর