বর্ষবরণের ৫৭ লাখ টাকা প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিলে দিচ্ছে ঢাবি

বর্ষবরণের ৫৭ লাখ টাকা প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিলে দিচ্ছে ঢাবি

ঢাবি প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১৬:৪৩ ৮ এপ্রিল ২০২০   আপডেট: ১৬:৫৮ ৮ এপ্রিল ২০২০

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

বাংলা নববর্ষ উদযাপন অনুষ্ঠানের বিভিন্ন হলের আপ্যায়ন বাবদ বরাদ্দকৃত ৫৭ লাখ টাকা প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিলে দেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন।

বুধবার দুপুরে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামান ডেইলি বাংলাদেশকে এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

উপাচার্য বলেন, অর্থ সংকট থাকা সত্ত্বেও যেহেতু আমাদের নববর্ষের জন্য বরাদ্দকৃত টাকাটি খরচ হচ্ছে না, তাই আমরা বরাদ্দকৃত প্রায় ৫৭ লাখ টাকা প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিলে জমা দেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছি।

কবে নাগাদ এই টাকা ত্রাণ তহবিলে দেয়া হবে জানতে চাইলে উপাচার্য বলেন, বিশ্ববিদ্যালয়ের সর্বোচ্চ নীতিনির্ধারণী ফোরামে (সিন্ডিকেট) অনুমতির পর পুরো টাকা প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিলে জমা দেয়া হবে।

তিনি বলেন, টাকাটি শিক্ষার্থীদের জন্যই ব্যয় হত। কিন্তু শিক্ষার্থীদের প্রতিনিধিরাও (ডাকসু) চায় সেটি প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিলে দিতে। সব মিলিয়ে দেশের এই দুর্দশায় আমরা সীমিত সামর্থ্য নিয়ে দেশবাসীর পাশে দাঁড়াতে চাই।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদের (ডাকসু) নেতৃবৃন্দদের আহ্বানে নববর্ষের জন্য বরাদ্দকৃত বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন হলগুলোর আপ্যায়ন বাবদ ৫৭ লক্ষ টাকা প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিলে দেয়ার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। 

ডাকসুর আহ্বানের বিষয়টি নিশ্চিত করে ডাকসুর সহ-সাধারণ সম্পাদক (এজিএস) সাদ্দাম হোসেন বলেন, ডাকসুর আহ্বানের প্রেক্ষিতে নববর্ষের জন্য বরাদ্দকৃত হলগুলোর আপ্যায়ন বাবদ অর্থ অসহায় মানুষের সহায়তার জন্য প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিলে দেয়ার সিদ্ধান্ত চূড়ান্ত হয়েছে।

তিনি আরও বলেন, যেহেতু বৈশ্বিক একটি সংকট আমরা মোকাবিলা করছি এবং অসহায় মানুষদের পাশে দাঁড়ানোর নৈতিক দায়বদ্ধতা ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের রয়েছে। সেজন্য আমরা ডাকসুর পক্ষ থেকে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনকে এ আহ্বান জানিয়েছি। বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন থেকে অনানুষ্ঠানিকভাবে জানানো হয়েছে যে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের পক্ষ থেকে প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিলে এই টাকা দেয়ার সিদ্দান্ত হয়েছে। খুব শিগগিরই এটা হস্তান্তর করা হবে।

ডেইলি বাংলাদেশ/জেডএম