Alexa বরফের এই ফেস প্যাক যেকোনো ত্বকের যত্নে বেশ কার্যকরী

বরফের এই ফেস প্যাক যেকোনো ত্বকের যত্নে বেশ কার্যকরী

লাইফস্টাইল ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১২:৩১ ২১ আগস্ট ২০১৯  

ফাইল ছবি

ফাইল ছবি

অবাক হলেও সত্যি যে, বরফের ফেস প্যাক ত্বকের যত্ন নিতে দারুন কাজ করে। বরফ ব্লাড সার্কুলেশন ঠিক রাখতে সাহায্য করে, ফলে স্কিন বা ত্বকের স্বাভাবিক জেল্লা বজায় থাকে সবসময়। অনেকেরই ধারণা মুখে বরফ লাগালে ক্ষতি হতে পারে। কিন্তু এই ধারণাটি একদম ভুল। কারণ বরফের কোনো পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া নেই।  

বরফের উপকারিতা
> বরফ ত্বকের জন্য অনেক উপকারি। এটি রক্ত সঞ্চালন বাড়িয়ে দেয় ফলে ত্বকে অক্সিজেনের যোগান সঠিক মাত্রায় হয়। যা ত্বককে ফ্রেস বা সতেজ রাখে ২৪ ঘণ্টা।

> স্কিনের উপরের মরা কোষ দূর করে। বন্ধ থাকা পোর্স খুলে দেয় ফলে স্কিনের ডালনেস দূর হয়।

> ব্রণ বা গরম ফোঁড়া হতে দেয় না। হলে তা দ্রুত দূর করে।

> মেকআপের আগে বরফ মুখে ঘষে নিলে বা বরফের ফেস প্যাক ব্যবহার করলে মেকআপের বেস খুব ভালো ভাবে মুখে বসে।

> ত্বকের যাবতীয় যত্ন নিতে সাহায্য করে।

মুখে বরফ লাগানোর নিয়ম
প্রতিটি জিনিস ব্যবহারের সঠিক কিছু নিয়ম থাকে। তা মেনে ব্যবহার করলে তবেই তা কার্যকরী হয়। বরফ বা আইস কিউবের ফেস প্যাক সঠিক ভাবে লাগালে তবেই তা আপনাদের উপকারে আসবে। তাই জেনে নিন নিয়মটি-

সরাসরি মুখে কখন বরফ বা আইস কিউব লাগাবেন না। পরিষ্কার পাতলা সুতির কাপড়ে মুড়ে তবে তা ব্যবহার করবেন। বরফের সঙ্গে যদি কিছু সামগ্রী মেশানো থাকে, তবে তা চোখের থেকে একটু দূরে রাখবেন। বরফ শরীরের যেখানেই লাগান না কেন এক ঘণ্টার বেশি তা ব্যবহার করবেন না।চলুন এবার জেনে নেয়া যাক ফেস প্যাকগুলো সম্পর্কে-

গ্রিন টি আইস ফেস প্যাক
এই ফেস প্যাক অ্যান্টি অক্সিডেন্ট হিসেবে কাজ করে। স্কিনের থেকে টক্সিন দূর করে এই আইস কিউব। স্কিন গ্লো করতে সাহায্য করে ও ফ্রেস রাখে।

প্রথমে স্বাভাবিক নইয়মে গ্রিন টি বানিয়ে নিন। এবার তা ঠাণ্ডা করার পর আইস ট্রে’তে ঢেলে ফ্রিজে রেখে দিন। ৪ থেকে ৫ ঘণ্টার মতো ফ্রিজে রাখুন। তারপর এটি ব্যবহার করুন যেভাবে আইস কিউব মুখে লাগায় ঠিক সেই ভাবে। বরফ গলে যাওয়ার পর ২০ মিনিটের মতো অপেক্ষা করে ঠাণ্ডা পানি দিয়ে মুখ ধুয়ে নিন। সপ্তাহে একদিন অন্তর একদিন এটি লাগান।

শসার আইস ফেস প্যাক
ত্বক উজ্জ্বল করতে এর থেকে ভালো আর কিছু নেই। এটি চোখের নীচের কালি দূর করতে সাহায্য করে। তাছাড়া স্কিনের মরা চামড়া দূর করে মুখ পরিষ্কার রাখে।

শসার পেস্ট করে তা আইস’ট্রে তে রেখে জমাতে পারেন বা শসা গোল গোল করে কেটে আইস কিউবে রেখে সামান্য পানি দিয়ে তা জমিয়ে নিতে পারেন। আইস কিউব জমে গেলেই এটি ফেস প্যাকের মতো করে মুখে লাগানো যাবে। চোখের নিচে ডার্ক সার্কেল থাকলে সেখানে লাগানো যেতে পারে। ফেস প্যাক লাগানোর ৩০ মিনিট পর মুখ ধুয়ে নিলেই হবে। এটি সপ্তাহে তিনদিন ব্যবহার করা যেতে পারে।

অ্যালোভেরা আইস ফেস প্যাক
স্কিন উজ্জ্বল করা, ব্রণ দূর করা, ডার্ক সার্কেল সরানো হাজার একটা সমস্যার সমধান রয়েছে এতে। স্বাভাবিক জেল্লা দ্রুত ফিরিয়ে আনতে সাহায্য করে। স্কিন উজ্জ্বল করে ফলে মুখের কালচে ভাব থাকে না। র‍্যাশ থেকে স্কিনকে রক্ষা করে গরমকালে। তাছাড়া মেকআপ ওঠাতে টোনার হিসেবে কাজ করে।

অ্যালোভেরা জেল ট্রে’তে রেখে ফ্রিজে জমিয়ে আইস কিউব বানিয়ে নিন। মুখে লাগিয়ে ১০ মিনিট ম্যাসাজ করুন। লাগানোর ১৫ মিনিট পর মুখ ধুয়ে নিন। এটি চাইলে রোজ ব্যবহার করতে পারেন। না হলে সপ্তাহে ৩ থেকে ৪ দিন ব্যবহার করুন।

ডেইলি বাংলাদেশ/এএ