Alexa বউ বাজারে টিভি-সিডির উচ্চশব্দে কান ঝালাপালা

বউ বাজারে টিভি-সিডির উচ্চশব্দে কান ঝালাপালা

এম এ এইচ শাহীন, কোম্পানীগঞ্জ ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১২:৫৩ ১৭ জানুয়ারি ২০২০   আপডেট: ১৩:০৮ ১৭ জানুয়ারি ২০২০

ছবি: ডেইলি ‍বাংলাদেশ

ছবি: ডেইলি ‍বাংলাদেশ

সিলেটের কোম্পানীগঞ্জ উপজেলার টুকেরগাঁও চকবাজার (বউ বাজার) মসজিদের কাছের দোকানগুলোতে দিনের বেলায় উচ্চশব্দে টেলিভিশন ও সিডি চালানো হয়। এতে নামাজি মুসল্লিদের রীতিমতো ইবাদত বন্দেগিতে ব্যাঘাত ঘটছে। পাশে থাকা বাসাবাড়ি, কলোনির কোমলমতি স্কুলপড়ুয়া ছেলেমেয়েরা ঠিকমতো পড়ায় মনোযোগ দিতে পারছে না। অনেকে মানসিক বিকারগস্ত হয়েও পড়ছেন।

সম্প্রতি এক দুপুরে বউ বাজারে সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, ওই বাজারে টিনের ছাউনির সারিবদ্ধ ১০ থেকে ১৫টি দোকান রয়েছে। বাসাবাড়ি ও কলোনির পাশেই লাগোয়া চা-মিষ্টির কয়েকটি দোকানে প্রচণ্ড উচ্চশব্দে চলছে টেলিভিশন ও ভিসিডি। 

এছাড়া কয়েকটি দোকানে জুয়ার আসরও বসেছে। স্কুল ফাঁকি দিয়ে তিন শিক্ষার্থী দাঁড়িয়ে চায়ের দোকানে টেলিভিশন দেখছে। টেলিভিশনের সামনে দাঁড়িয়ে চতুর্থ শ্রেণির এক শিক্ষার্থী বলেন, চায়ের দোকানের টিভিতে ফাইন ছবি চলে। ছবি দেখছি। ক্লাসের কথা মনে নেই।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে এক অভিভাবক বলেন, স্কুলের সময় চায়ের দোকানগুলোতে টিভি-ভিসিডিতে উচ্চশব্দে বিভিন্ন ধরনের গান বাজানো হয়। এতে আশপাশের লোকজনের কান ঝালাপালা হওয়ার মতো অবস্থা হয়ে দাঁড়িয়েছে। 

হারুন অর রশিদ নামে অপর এক অভিভাবক বলেন, চায়ের দোকানগুলোতে সিনেমাও দেখানো হয়। অল্প বয়সী স্কুলের ছেলেরা ক্লাস ফাঁকি দিয়ে এসব সিনেমা দেখে। এগুলো বন্ধ করতে কোনো ধরনের উদ্যোগই নেয়া হচ্ছে না। 

টুকেরগাঁও বউ বাজার ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি মো. কামাল হোসেন বলেন, এসব ব্যবসায়ীরা নানাভাবে শিক্ষার্থীদের বিরাট ক্ষতি করছে। সম্ভাবনাময় এসব কোমলমতি শিশুদের শিক্ষার সহায়ক পরিবেশে ব্যাঘাত ঘটাচ্ছে।

স্থানীয় বাসিন্দারা জানান, এসব চায়ের দোকানসহ এর সঙ্গে জড়িত অন্যান্য ব্যাবসায়ীদের স্কুল চলার সময় টিভি বন্ধ রাখতে বলা হলেও তাদের সে বিষয়ে কোনো তোয়াক্কা নেই।

আমিনুল হক নামে এক শিক্ষার্থী বলেন, জোরে জোরে গান বাজালে পড়ায় মনোযোগ দিতে কষ্ট হয়। স্যারদের দেয়া বাড়ির কাজ শেষ করতে পারি না। 

এদিকে বউ বাজারের চায়ের দোকানিরা বলেন, সারাদিন চা তৈরির কাজে ব্যস্ত থাকি এবং ব্যস্ততার ফাঁকে ফাঁকে গান-সিনেমা দেখলে কিছুটা ভালো লাগে। খদ্দররাও বিনোদন পান। তাই দোকানে টেলিভিশন ভিসিডি রাখি।

সাইফুল ইসলাম নামে স্থানীয় এক ওষুধ ব্যবসায়ী বলেন, বউ বাজারের চা স্টলগুলোর উচ্চশব্দে গানা বাজানোতে শিক্ষার পরিবেশ ব্যাহত হচ্ছে। অনেক শিশু স্কুলে না গিয়ে দোকানগুলোতে টিভি দেখতে বসে যায়। স্কুলের সময় টিভি-ভিসিডি বন্ধ রাখতে অনুরোধ করলেও চায়ের দোকানের মালিকেরা গা করছে না।

এ বিষয়ে ইসলামপুর পশ্চিম ইউপি চেয়ারম্যান শাহ মোহাম্মদ জামাল উদ্দিন বলেন, উচ্চশব্দে টিভি-সিডি বাজানো খুবই নিন্দনীয় ও জঘন্য কাজ। কাছাকাচি চকবাজার মসজিদের মুসল্লিদেরও ইবাদত-বন্দেগিতে সমস্যা হচ্ছে। আমি উপজেলা আইনশৃঙ্খলা কমিটির সভায় বিষয়টি উপস্থাপন করবো।

কোম্পানীগঞ্জ থানার ওসি সজল কুমার কানু বলেন, এখন পর্যন্ত এ বিষয়ে কোনো লিখিত অভিযোগ পাওয়া যায়নি। খোঁজ নিয়ে আইনানুযায়ী ব্যবস্থা নেয়া হবে।
     

ডেইলি বাংলাদেশ/জেডআর