ফেসবুক পেজের সূত্র ধরে অপরাধী গ্রেফতার

ফেসবুক পেজের সূত্র ধরে অপরাধী গ্রেফতার

নিজস্ব প্রতিবেদক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ২১:৩৬ ৮ জুলাই ২০২০  

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

মানসিক ভারসাম্যহীন এক ব্যক্তিকে মারধর করার ঘটনা ফেসবুক পেজের মাধ্যমে জেনে দ্রুত ব্যবস্থা নিয়ে দুই ব্যক্তিকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। ঘটানটি ঘটেছে পটুয়াখালী সদর থানাধীন মরিচবুনিয়া গ্রামে।

বুধবার পুলিশ সদর দফতরের এআইজি (মিডিয়া) সোহেল রানা এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

তিনি জানান, পটুয়াখালী সদর থানার মরিচবুনিয়া গ্রামে মানসিক ভারসাম্যহীন এক ব্যক্তিকে কে বা কারা রাতের আঁধারে মেরে মারাত্মকভাবে আহত করে ফেলে রেখে গিয়েছে। এমন একটি সংবাদ বাংলাদেশ পুলিশের ফেসবুক পেজের ইনবক্সে জানান একই এলাকার একজন সচেতন নাগরিক। বিষয়টি দৃষ্টিতে আসার সঙ্গে সঙ্গে এ বিষয়ে প্রয়াজনীয় আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য পটুয়াখালী পুলিশ সুপারকে অবগত করে বাংলাদেশ পুলিশের মিডিয়া অ্যান্ড পাবলিক রিলেশন্স উইং। এরপরই অনুসন্ধানে নামে জেলা পুলিশ।

তিনি জানান, অনুসন্ধানে জানা যায়, ভুক্তভোগী জুয়েল (২৬) মানসিক ভারসাম্যহীন এবং অত্যন্ত দরিদ্র পরিবারের সন্তান। সংসারে মা-ই তার একমাত্র অবলম্বন। অভাবের কারণে বেশ কিছুদিন ধরে ভিকটিমের মা একই গ্রামে দেড় কিলোমিটার দূরে তার খালার বাড়িতে অবস্থান করছিলেন। ভারসাম্যহীন জুয়েল এদিক সেদিক ঘোরাফেরা করত এবং যেখানে যা পেত তাই খেত। মরিচবুনিয়া গ্রামের দীনিয়া হাফিজিয়া মাদরাসা করোনার কারণে বন্ধ থাকায় জুয়েল মাদরাসার ভিতরে একাকি রাত্রী যাপন করতে শুরু করে। পরবর্তীতে গত ২৫ জুন কে বা কারা জুয়েলকে মেরে মারাত্মকভাবে জখম করে।

অনুসন্ধানে ঘটনা ও অভিযোগের প্রাথমিক সত্যতা পাওয়ায় মূল অভিযুক্ত ফোরকান হাওলাদার ও আবুল হাওলাদারকে গ্রেফতার করে। পরবর্তীতে টিআই প্যারেড এর মাধ্যমে ভিকটিম জুয়েল আসামি ফোরকান ও আবুলকে শনাক্ত করেন। 

এ বিষয়ে পটুয়াখালী সদর থানায় মামলা দায়ের হয়েছে। পটুয়াখালী পুলিশ সুপার ভিকটিমের সুচিকিৎসার ব্যবস্থা করেছেন। 

ডেইলি বাংলাদেশ/এসসি/এসআই