Alexa ফেসবুকে আপত্তিকর ছবি ছড়ানো ‘লাজুক’ বরখাস্ত

ফেসবুকে আপত্তিকর ছবি ছড়ানো ‘লাজুক’ বরখাস্ত

গৌরীপুর (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১৭:৩৩ ২৩ জানুয়ারি ২০২০  

বরখাস্ত হওয়া শিক্ষক কয়েস আল কয়কোবাদ লাজুক

বরখাস্ত হওয়া শিক্ষক কয়েস আল কয়কোবাদ লাজুক

ফেসবুকে উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তার আপত্তিকর ছবি ছড়ানোয় গ্রেফতার হওয়া শিক্ষক কয়েস আল কয়কোবাদ লাজুককে বরখাস্ত করা হয়েছে।

তিনি ময়মনসিংহের গৌরীপুর উপজেলার ধূরুয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক ছিলেন। বুধবার তাকে সাময়িক বরখাস্ত করেন জেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মো. শফিউল হক।

সোমবার রাতে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন ও মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনের একাধিক মামলায় লাজুক ও তার দুই সহযোগী শামসুজ্জামান বাপ্পী, তৌহিদা আক্তার রুমাকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

লাজুকের গ্রেফতার ও বরখাস্তের খবরে স্বস্তি ফিরেছে গৌরীপুরের জনগণের মনে। তারা উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা মনিকা পারভীনের সাহসী ভূমিকার প্রশংসা ও পুলিশের প্রতি সন্তুষ্টি প্রকাশ করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে পোস্ট দিয়েছেন।

উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মনিকা পারভীন বলেন, শিক্ষক লাজুক নিয়ম বহির্ভূতভাবে চারজন শিক্ষককে বদলির সুপারিশ করেন। এতে রাজি না হওয়ায় ১৯ ও ২০ জানুয়ারি তিনি ও তার সহযোগীরা ফেসবুকে আমাকে নিয়ে অশ্লীল মন্তব্য ও আপত্তিকর ছবি আপলোড করে। এছাড়া আমার মেসেঞ্জারেও অশ্লীল ভাষায় মন্তব্য ও হুমকি দেয়। পরে আমি মামলা করি।

গৌরীপুর থানার ওসি মো. বোরহান উদ্দিন জানান, লাজুক একাধারে সাইবার ক্রিমিনাল, মাদক ব্যবসায়ী ও মাদকাসক্ত। তিনি ও তার সহযোগীরা নিজস্ব ফেসবুক আইডিসহ বিভিন্ন ভুয়া আইডি দিয়ে জনপ্রতিনিধি, রাজনৈতিক নেতা, সরকারি কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে আপত্তিকর ছবি ও লেখা পোস্ট করতেন। পরে ব্ল্যাকমেইল করে টাকা হাতিয়ে নিতেন।

তিনি বলেন, উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মনিকা পারভীনকে নিয়ে ফেসবুকে অশ্লীল ভাষায় মন্তব্য ও আপত্তিকর ছবি পোস্ট করায় তাদের বিরুদ্ধে মামলা হয়। পরে ইয়াবাসহ তিনজনকে গ্রেফতার করা হয়।

ডেইলি বাংলাদেশ/এআর