Alexa ফের ট্রাম্পের বিরুদ্ধে রাস্তায় যুক্তরাষ্ট্রের নারীরা

ফের ট্রাম্পের বিরুদ্ধে রাস্তায় যুক্তরাষ্ট্রের নারীরা

আন্তর্জাতিক ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১৮:৩০ ১৯ জানুয়ারি ২০২০  

ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের বিরুদ্ধে চতুর্থবারের মতো আন্দোলনে নেমেছেন যুক্তরাষ্ট্রের নারীরা। এর আগে ২০১৭ সালে প্রথম ট্রাম্পবিরোধী আন্দোলন শুরু হয়।

শনিবার যুক্তরাষ্ট্রের রাজধানী ওয়াশিংটনে ‘উইমেন মার্চ বা নারী পদযাত্রা ২০২০’ এ অংশ নিয়েছেন দেশটির কয়েক হাজার নারী। একইদিনে দেশটির ১৮০ টিরও বেশি শহরে আন্দোলন কর্মসূচী নির্ধারিত ছিল। নারীদের সঙ্গে আন্দোলনে যোগ দিয়েছিলেন পুরুষরাও। 

দেশের জলবায়ু পরিবর্তন, বেতন বৈষম্য, মাতৃত্বকালীন অধিকার, অভিবাসন ইত্যাদির মতো বিষয়গুলোর ওপর মনোনিবেশ করে দেশব্যাপী এই পদযাত্রা করে নারীরা। আন্দোলনের আরেকটি লক্ষ্য ছিল নারীদের রাজনৈতিক শক্তি বৃদ্ধি করা। তবে সেখানে আগের তুলনায় নারীদের সংখ্যা লক্ষণীয়ভাবে কম ছিল বলে জানা গেছে।

ট্রাম্প প্রেসিডেন্ট হিসেবে শপথ নেয়ার একদিন পরেই যুক্তরাষ্ট্রের মানুষ রাস্তায় নেমে প্রতিবাদ জানান। প্রায় এক লাখ মানুষের সেই মিছিলে ট্রাম্পকে প্রত্যাখান করার কথা বলা হয়।

ট্রাম্পের নারীবিদ্বেষী মন্তব্য, যৌন নিপীড়নমূলক ভাষার ব্যবহার ও নারীদের অবহেলিত করে দেখার প্রবণতার বিরোধিতা করছেন প্রতিবাদী নারীরা। ট্রাম্পের বিরুদ্ধে সরাসরি ধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে বলেও দাবি করেন তারা। এর আগে অন্য কোনো মার্কিন প্রেসিডেন্টের বিরুদ্ধে এমন কোনো অভিযোগ ছিল না বলে জানান তারা। এছাড়া তারা আরো বলেন, ট্রাম্প সরকার ব্যবস্থায় সবচেয়ে অনিরাপদ জীবনযাপন করছেন নারীরা।

দেশটির ম্যানহাটন, ফোলি স্কয়ার এবং কলম্বাস সার্কেলের পৃথক পদযাত্রায় শতাধিক মানুষ একত্রিত হয়। ফোলি স্কয়ারের মানুষের উদ্দেশ্যে ডোনা হিলটন নামক এক আন্দোলন কর্মী বলেন, আজ আমরা আমাদের উদ্যমে জেগে উঠবো। পৃথিবীতে প্রয়োজনীয় পরিবর্তন আনবো আমরা।

 

উইমেন মার্চ পরিচালনা পরিষদের এক সদস্য বলেন, এই দেশের নারীরা ততদিন ক্ষমতায় আসতে পারবে না যতদিন ট্রাম্প সরকার ক্ষমতায় থাকবে। কারণ এই সরকারব্যবস্থা মোটেই নারীবান্ধব নয়।

এই মার্চে অংশ নেয়ার পর রাসেল রায়ান নামক একজন টুইটার বার্তায় বলেন, ‘ট্রাম্প সরকার এই দেশের যোগ্য নয়। তার শাসন প্রতিহত করার লক্ষ্যেই দীর্ঘ চার বছর ধরে আন্দোলন করছি আমরা। 

দেশটির নারীদের সমতার দাবি জানিয়ে এই পদযাত্রায় বলা হয় , নারীদের অধিকার নিশ্চিত করতে ব্যর্থ ট্রাম্প। ভবিষ্যতে নারীরা যেন কোনো ধরণের বৈষম্যের শিকার না হয় তাই এই আন্দোলন দেশে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে। 

সূত্র- এপি

ডেইলি বাংলাদেশ/এসএমএফ