ফেরিতে উঠতে ১০ ঘণ্টার অপেক্ষা সড়কেই

ফেরিতে উঠতে ১০ ঘণ্টার অপেক্ষা সড়কেই

গোয়ালন্দ (রাজবাড়ী) প্রতিনিধি  ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১৯:৪৪ ৮ আগস্ট ২০২০   আপডেট: ১৯:৫১ ৮ আগস্ট ২০২০

ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

রাজবাড়ীর গোয়ালন্দের দৌলতদিয়া ঘাটে নদী পারাপারের জন্য প্রায় ১০ ঘণ্টা ধরে অপেক্ষা করছে প্রায় পাঁচ শতাধিক যানবাহন। 

এদের মধ্যে পণ্যবাহী ট্রাক, যাত্রীবাহী বাস ও ব্যক্তিগত গাড়ি রয়েছে। ফলে প্রচণ্ড গরমের মধ্যে চরম ভোগান্তিতে পড়েছেন যাত্রী ও চালকেরা।

শনিবার ঘাট এলাকায় গিয়ে দেখা যায়, নদী পারের জন্য দৌলতদিয়া ৩ নম্বর ফেরিঘাট থেকে ঢাকা-খুলনা মহাসড়কের দৌলতদিয়া ইউপি ছেড়ে প্রায় চার কিলোমিটার সড়কে অপেক্ষা করছে শত শত যাত্রীবাহী বাস। যানবাহনগুলোকে ফেরিতে উঠতে প্রায় ৮-১০ ঘণ্টা অপেক্ষা করতে হচ্ছে সড়কেই।

কর্তৃপক্ষ জানায়, পচনশীল ও কাঁচামালবাহী ট্রাককে অগ্রাধিকার ভিত্তিতে নদী পারাপারের সুযোগ করে দেয়া হচ্ছে। যানবাহন ও যাত্রীদের সার্বিক নিরাপত্তার জন্য অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। সড়ক জুড়ে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর কঠোর নিয়ন্ত্রণে রয়েছে।

আসলাম শেখ নামে একজন ট্রাক চালক জানান, চার দিন ধরে সড়কে অবস্থান করছি। খাবার নেই, নেই টয়লেটের ব্যবস্থা। দুর্বিষহ জীবন কাটছে। এখনো ঘাট থেকে অনেক দূরে। জানি না কখন নদী পার হতে পারব।

বিআইডব্লিউটিসি দৌলতদিয়া ঘাটের ব্যবস্থাপক আবু আব্দুল্লাহ রনি জানান, কাঁঠালবাড়ী- শিমুলিয়া নৌরুটের ঘাট ভেঙে যাওয়ায় এবং নদীতে স্রোতের অতিরিক্ত বেগ থাকায় ফেরি চলাচলে ব্যাহত হচ্ছে। যার কারণে দৌলতদিয়া প্রান্তে অতিরিক্ত যানবাহনের চাপ রয়েছে।

ডেইলি বাংলাদেশ/এমকে