ফরিদপুরে দ্বিগুণ ভাড়া গুনছেন বাসযাত্রীরা

ফরিদপুরে দ্বিগুণ ভাড়া গুনছেন বাসযাত্রীরা

ফরিদপুর প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১৭:৩৫ ১ জুন ২০২০   আপডেট: ১৭:৩৬ ১ জুন ২০২০

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

ফরিদপুরে দীর্ঘ দুই মাসের বেশি সময় বন্ধ থাকার পর শুরু হয়েছে গণপরিবহন চলাচল। প্রথম দিনেই দেখা গেছে যাত্রীদের উপচে পড়া ভিড়। দূরপাল্লা ও লোকাল উভয় রুটেই ভাড়া নেয়া হচ্ছে দ্বিগুণ। আবার দূরপাল্লার বাসে বর্ধিত বাড়ায় দুই সিটে এক যাত্রী নেয়া হলেও লোকাল বাসে মানা হচ্ছে না এ নিয়ম।

যাত্রীদের উঠানোর আগে বাসগুলোতে জীবাণুনাশক স্প্রে করার নির্দেশনা থাকলেও তা মানা হচ্ছে না অধিকাংশ পরিবহনেই। যদিও বাস চলাচলে যাত্রীদের সঙ্গে কিছুটা স্বস্তি এসেছে শ্রমিকদের মাঝে। তবে অনেকে জানিয়েছেন, তাদের মজুরি কমিয়ে দেয়া হয়েছে। 

সাউথ লাইনের চালক বলেন, অনেক দিন পরে গাড়ি নিয়ে নামছি রাস্তায়। কিন্তু একটু শঙ্কাতেও আছি। যদিও উপায় নেই আমাদের তো চলতেই হবে।

বোয়ালমারীর দাদপুর ইউপির রাসেল আহমেদ বলেন, ঢাকার গাবতলি যাওয়ার জন্য ৬০০ টাকা দিয়ে ফরিদপুর কাউন্টার থেকে গোল্ডেন লাইন পরিবহনের দুই সিটের টিকেট কেটেছি। 

এ ব্যাপারে গোল্ডেন লাইনের টিকেট কাউন্টারের ম্যানেজার অলোক সেন বলেন, যেহেতু একজন যাত্রীকে দু’টি সিটের টিকেট কাটতে হচ্ছে তাই ভাড়া একটু বেশি মনে হচ্ছে। দুই সিটে তিনি একাই যেতে পারবেন।

প্রায় দুই মাসেরও বেশি বন্ধ থাকার পর কাজে যোগ দিতে পেরে খুশি বাস শ্রমিকেরা। তবে তাদের অনেককে আগের চেয়ে কম বেতনে কাজ করতে হবে বলে জানান অনেকে। 

এজন শ্রমিক জানান, আগে ৩০০ টাকা পেতাম আজ থেকে ১৫০ টাকা দেবে বলে জানিয়েছেন মালিক।

ফরিদপুর মোটর শ্রমিক ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক গোলাম মোহাম্মদ নাসির বলেন, শ্রমিকদের বেতনের বিষয়টি মালিকপক্ষের বিষয়। তিনি এ ব্যাপারে কিছু জানেন না।

ফরিদপুর বাস মালিক গ্রুপের সভাপতি বরকত ইবনে সালাম বলেন, সরকারের প্রজ্ঞাপন অনুযায়ী শর্তাবলী ও স্বাস্থ্যবিধি মেনেই সংশ্লিষ্টদের যাত্রী পরিবহনের জন্য কঠোরভাবে নির্দেশ দেয়া হয়েছে। বৃহত্তর স্বার্থে সবাইকে নিয়মের মধ্যে চলার জন্য অনুরোধ করেছি। যেহেতু স্বল্প পরিসরে বাস চলাচল শুরু হয়েছে তাই পরিস্থিতি ভালো হলে শ্রমিকদের সমস্যাও কেটে যাবে। 

ফরিদপুরের হাইওয়ে পুলিশের ওসি শাহ্ জালাল আলম বলেন, সরকারি নির্দেশনা মেনে পরিবহনগুলো চলাচল করছে কীনা সেটি আমরা তদারকি করছি। দীর্ঘদিন পর বাস চলাচল শুরু হওয়ায় অবশ্য অনেকেই স্বাস্থ্যবিধি মানছে না। আমরা তাদের কঠোরভাবে নির্দেশনা দিয়েছি যাতে তারা নিয়ম মেনেই বাস চলাচল করেন।
 

ডেইলি বাংলাদেশ/জেএইচ