প্রাইভেটকার কিনে অভিনব কায়দায় গরু চুরি

প্রাইভেটকার কিনে অভিনব কায়দায় গরু চুরি

বরিশাল প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১৪:০৯ ১১ আগস্ট ২০২০   আপডেট: ১৫:৩১ ২১ আগস্ট ২০২০

ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

গরু চুরির পর প্রাইভেটকারে করে পালানোর সময় চোরচক্রের সদস্য মিজানুর রহমান হাওলাদারকে আটক করেছে পুলিশ। পরে তার প্রাইভেটকার থেকে চুরি হওয়া একটি গরু উদ্ধার করা হয়।

বরিশালের উজিরপুর উপজেলার জয়শ্রী এলাকায় এ ঘটনা ঘটেছে। সোমবার দুপুরে ১২টায় এ ঘটনায় উজিরপুর থানায় অভিযুক্তের বিরুদ্ধে চুরির অভিযোগে মামলা হয়েছে।

আটক মিজানুর রহমান হাওলাদার ঝালকাঠির রাজাপুর উপজেলার আব্দুল মান্নানের ছেলে।

পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, মিজানুর রহমান দীর্ঘদিন ধরে গরু চুরি করছিলেন। তার বিরুদ্ধে বিভিন্ন থানায় গরু চুরির একাধিক মামলা রয়েছে। এ কাজে তাকে সহায়তার জন্য দুইজন সহযোগী রয়েছেন। গরু চুরি করে দ্রুত পালানোর জন্য প্রায় তিন বছর আগে একটি প্রাইভেটকার কিনেন মিজানুর রহমান। এরপর থেকে তিনি প্রাইভেটকারে করে গরু চুরি করছিলেন।

১০ আগস্ট সোমবার ভোরে উজিরপুর জয়শ্রী এলাকার ওমর আলী নামে এক ব্যক্তির গরু চুরি করে প্রাইভেটকারে করে পালাচ্ছিলেন মিজানুর রহমান ও তার দুই সহযোগী। তাদের প্রাইভেটকারটি বরিশাল-ঢাকা মহাসড়ক দিয়ে যাওয়ার সময় উজিরপুর থানা-পুলিশের একটি টহল দলের সন্দেহ হয়। প্রাইভেটকারকে দাঁড়ানোর সংকেত দিলে তা অমান্য করে পুলিশ সদস্যদের চাপা দিয়ে পালানোর চেষ্টা করেন তারা।

পরে সড়কে ট্রাক ব্যারিকেড দিয়ে প্রাইভেটকারকে থামানো হয়। আটক করা হয় মিজানুর রহমানকে। তবে এ সময় তার দুই সহযোগী পালিয়ে যান। প্রাইভেটকার থেকে উদ্ধার করা হয় চুরি করা একটি গাভি।

উজিরপুর থানার ওসি জিয়াউল আহসান জানান, মিজানুর রহমান প্রাইভেটকারে ১০-১২টি গরু চুরির কথা পুলিশের কাছে স্বীকার করেছেন। তিনি বলেন, দিনের বেলায় প্রাইভেটকার নিয়ে ঘুরে ঘুরে সড়কের পাশে কোন বাড়িতে গরু আছে তা দেখে রাখতেন। পরে রাতে গিয়ে সুযোগ বুঝে ওই গরুর পা বেঁধে প্রাইভেটকারে তুলে সেখান থেকে দ্রুত সটকে পড়তেন।

তিনি আরো জানান, গরু চুরির ঘটনায় মিজানুর রহমান ও তার দুই সহযোগীর বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে। পুলিশ পালিয়ে যাওয়া মিজানুর রহমানের দুই সহযোগীকে গ্রেফতারের চেষ্টা করছে বলেও জানান তিনি।

ডেইলি বাংলাদেশ/আরএম/এমকেএ