Alexa প্রযোজকরা কারণ ছাড়াই সিনেমা থেকে বাদ দিয়েছে: শিল্পা শেঠি

প্রযোজকরা কারণ ছাড়াই সিনেমা থেকে বাদ দিয়েছে: শিল্পা শেঠি

বিনোদন ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১৫:২৪ ২২ মে ২০১৯   আপডেট: ১৫:৩৬ ২২ মে ২০১৯

ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

আমার মনে আছে বেশ কিছু প্রযোজক হঠাৎ করে কোনো কারণ ছাড়াই আমাকে তাদের সিনেমা থেকে বাদ দিয়ে দিচ্ছিলেন। পৃথিবী আমাকে কোনরকম সাহায্য করছিল না। কিন্তু আমি আমার মত চেষ্টা চালিয়ে গিয়েছি, কথাগুলো বলেছেন জনপ্রিয় নায়িকা শিল্পা শেঠি। সম্প্রতি হিউম্যান অফ বোম্বে-র একটি পোস্টে দেখা গিয়েছে শিল্পা শেঠিকে। সেখানেই তিনি একজন অভিনেত্রী হিসেবে জীবনের যেসব কাঠিন্যের সম্মুখীন হয়েছেন তা ব্যাখ্যা করেছেন। 

৪৩ বছরের এই অভিনেত্রী এখনো পর্যন্ত চল্লিশটিরও বেশি সিনেমায় অভিনয় করেছেন। ১৯৯৩ সালে বাজিগর সিনেমার মাধ্যমে বলিউডে পা রেখেছিলেন তিনি। নব্বইয়ের দশকের তিনি অন্যতম সফল অভিনেত্রী। তবে তিনি জানিয়েছেন তার বলিউডে পা রাখার পিছনে একটি হুট করে হয়ে যাওয়া ফটোশুট আসলে ‌দায়ী। 

শিল্পা বলেছেন, আমি শুধুমাত্র মজার ছলে একটি ফ্যাশন শো’তে অংশগ্রহণ করেছিলাম। সেখানে একজন ফটোগ্রাফার আমার ছবি তোলার অনুমতি চান। আমার বিষয়টা ভালোই লেগেছিল তবে ছবিগুলো এত ভালো এসেছিলো যে আমি অবাক হয়ে গিয়েছিলাম। সেই ছবি শীঘ্রই আমার সামনে মডেলিং এর রাস্তা খুলে দেয় এবং আমি প্রথম সিনেমার অফারও পেয়ে যাই। তারপরে আর পিছনে ফিরে তাকাতে হয়নি। শুধু এগিয়ে চলা।

শিল্পা মতে, কোনো কিছুই খুব সহজে হয়না। যখন আমি ইন্ডাস্ট্রিতে পা রেখেছিলাম আমার বয়স ছিল মাত্র ১৭। সেই সময় জীবন বা পৃথিবী সম্পর্কে আমার তেমন অভিজ্ঞতা ছিল না। সাফল্যের সঙ্গে তাই এসেছিল নানা সংশয় যার জন্য আমি তখন প্রস্তুত ছিলাম না।’

প্রথম প্রথম ক্যামেরার সামনে হিন্দি বলতে গিয়ে তার খুবই সমস্যা হতো। ২০০৭ সালে আপনে সিনেমাতে অভিনয় করেছিলেন শিল্পা। কারণ তার মনে হয়েছিল হঠাৎ করে প্রচুর সাফল্যের পরে এই স্তব্ধতা ঠিক হচ্ছেনা। শিল্পা বলেন, ‘আমার মনে আছে বেশ কিছু প্রযোজক হঠাৎ করে কোনো কারণ ছাড়াই আমাকে তাদের সিনেমা থেকে বাদ দিয়ে দিচ্ছিলেন। পৃথিবী আমাকে কোনোরকম সাহায্য করছিলেননা। কিন্তু আমি আমার মত চেষ্টা চালিয়ে গিয়েছি।"

বিগ ব্রাদার সিজন ফাইভ নামে একটি বিখ্যাত ব্রিটিশ রিয়ালিটি টিভি শো তে বিজয়ী হন শিল্পা। তিনি জানান, সেই রিয়েলিটি শো এ অংশগ্রহণ করার সিদ্ধান্ত তার এই কারণেই ছিল যে তিনি অন্যরকম কিছু করতে চাইছিলেন। তবে সেই ঘটনা পরে তিনি বিপুল খ্যাতি পান।

শিল্পা আরো বলেন, যত বাধাই আসুক না কেন আমি কোনোদিন থেমে যাইনি, ফিরে যাইনি। যখন ব্রিটিশ রিয়েলিটি শো’তে জিতলাম অনেকেই এগিয়ে এসে বলেছেন, তুমি আমাদের গর্বিত করেছো। শুধুমাত্র নিজের জন্যই নয় আরো বাকি যারা জাতি বিদ্বেষের শিকার সেদিন আমি তাদের সকলের হয়ে উঠে দাঁড়িয়েছিলাম। ওই রিয়ালিটি শোতে শিল্পাকে বর্ণ বিদ্বেষের মুখোমুখি হতে হয়েছিল। এই নিয়ে বিশ্বজুড়ে বর্ণবিদ্বেষ সংক্রান্ত বিতর্ক জন্ম নিয়েছিল। 

শিল্পা নিজের পোস্ট লিখেছেন, ‘খুব খারাপ সময় গিয়েছে। কিন্তু তার মধ্যে দিয়ে গিয়েও আমি কিছু অর্জন করেছি। প্রতিটি মুহূর্তই আমাকে কিছু শিখিয়ে গিয়েছে। আজকে আমি যে একজন শক্তিশালী স্বাধীন নারী, একজন গর্বিত অভিনেত্রী, মা এবং স্ত্রী তার পিছনে এই প্রতিটা মুহূর্তের শিক্ষাই দায়ী। ২০০৯ সালে ব্যবসায়ী রাজ কুন্দ্রাকে বিয়ে করেন শিল্পা, তাদের ভিয়ান নামে এক ছেলে রয়েছে। আপাতত সুপার ডান্সার থ্রি রিয়্যালিটি শো-এর বিচারকের ভূমিকায় শিল্পাকে দেখা যাচ্ছে।

ডেইলি বাংলাদেশ/জেএমএস