প্রথমবার এমন তিক্ত অভিজ্ঞতা পেলেন মিরাজ

প্রথমবার এমন তিক্ত অভিজ্ঞতা পেলেন মিরাজ

স্পোর্টস ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১৭:৫৪ ২২ ফেব্রুয়ারি ২০২০   আপডেট: ১৮:৩২ ২২ ফেব্রুয়ারি ২০২০

মেহেদী হাসান মিরাজ

মেহেদী হাসান মিরাজ

২০১৬ সালে টেস্ট অভিষেকের পর থেকে দলের নিয়মিত সদস্য হিসেবে দেখা গেছে অফ স্পিনার মেহেদী হাসান মিরাজকে। তবে দীর্ঘ সময় পরে হলেও এক তিক্ত অভিজ্ঞতার সম্মুখীন হলেন তিনি। প্রথমবারের মতো ঘরের মাটিতে টেস্ট দল থেকে বাদ পড়েছেন এই বোলার।

সাকিব আল হাসান না থাকায় দলের ভারসাম্য ঠিক রাখতে বরাবরই হিমশিম খান নির্বাচকরা। দীর্ঘদিন ধরে রক্ষণাত্মক মনোভাব নিয়ে টেস্ট খেলা বাংলাদেশ দলে ব্যাটসম্যানদের আধিপত্যই বেশি দেখা গেছে। চার বোলার নিয়ে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে একমাত্র টেস্টে খেলতে নামবে বাংলাদেশ এটা অনুমিতই ছিল। তবে বোলিং আক্রমণের যোদ্ধা কারা হবেন সে বিষয় ছিল অনিশ্চিত।

এর আগে পাকিস্তানের বিপক্ষে প্রথম টেস্টে একাদশে তিন পেসার থাকলেও দেশের মাটিতে দুই পেসারের বেশি খেলানো হবে না বলের জানা ছিল। চার বোলারের বাকি দুই জায়গায় স্পিনার হিসেবে তাইজুল ইসলাম একপ্রকার নিশ্চিত ছিলেন। চতুর্থ বোলার হিসেবে নাঈম হাসান ও মিরাজের মাঝে সুযোগ দেয়া হয়েছে নাঈমকেই। ফলে অভিষেকের পর এই প্রথম ঘরের মাঠে টেস্ট খেলছেন না মিরাজ। 

অভিষেকটা অবশ্য দারুণ ছিল এই ডানহাতি অফস্পিনারের। ইংল্যান্ডের বিপক্ষে নিজের প্রথম ম্যাচেই ৭ উইকেট নেয়ার পরের ম্যাচে নিয়েছিলেন ১২ উইকেট। এমন শুরুর পর আর পিছনে তাকাতে হয়নি তাকে। কিন্তু শেষ দু’বছর তার পারফরম্যান্স মোটেই আশানুরূপ ছিল না।

ক্রমাগত ব্যর্থতার ফলে ভারতের বিপক্ষে টেস্টে প্রথম দলে জায়গা হারান। সেখানে পরে কনকাশন সাব হিসেবে নামলেও বল করতে পারেননি। এবার ঘরের মাঠেও মিরাজকে ছাড়াই টেস্টে মাঠে নেমেছে বাংলাদেশ। দলে ফিরতে চাইলে বিশেষ কিছু করা ছাড়া আর উপায় নেই তার সামনে। 

ডেইলি বাংলাদেশ/এএল