Alexa প্রতিবন্ধীকে ধর্ষণ, ধর্ষককে পুড়িয়ে মারল জনতা

প্রতিবন্ধীকে ধর্ষণ, ধর্ষককে পুড়িয়ে মারল জনতা

আন্তর্জাতিক ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ০৯:৪১ ২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৯   আপডেট: ০৮:৪৭ ২৬ অক্টোবর ২০১৯

ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

বনে কাঠ সংগ্রহ করতে গিয়েছিল এক মানসিক প্রতিবন্ধী কিশোরী। সে সময় ওই কিশোরীকে ধর্ষণ করা হয়। অবশেষে এই ধর্ষণ অপরাধে অভিযুক্তের শরীরে আগুন দিয়ে পুড়িয়ে হত্যা করেছে উত্তেজিত জনতা। 

সোমবার দক্ষিণ আফ্রিকার লিমপোপো শহরের মুহোভয়া গ্রামে ঘটনাটি ঘটেছে। দেশটির পুলিশের বরাত দিয়ে ব্রিটিশ দৈনিক ডেইলি মেইল এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে।

ডেইলি মেইল জানায়, এক ব্যক্তির বিরুদ্ধে মানসিক প্রতিবন্ধী কিশোরী ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছিল। এ ঘটনায় গ্রামের উত্তেজিত জনতা ওই ধর্ষককে আগুনে পুড়িয়ে হত্যা করে। পরে ওই ব্যক্তির মরদেহের অবশিষ্ট অংশ উদ্ধার করে পুলিশ।

দেশটির সংবাদমাধ্যম সোয়েতান লাইভ জানায়, মুহোভয়া গ্রামের স্থানীয় সম্প্রদায়ের লোকজন মানসিক প্রতিবন্ধী ১৭ বছরের এক কিশোরীকে ধর্ষণের অভিযোগে এক ব্যক্তিকে চিহ্নিত করে। পরে তাকে পুড়িয়ে মারে।

পুলিশের মুখপাত্র কর্নেল মোতসে এনগোপে স্থানীয়দের বরাত দিয়ে জানান, ওই মানসিক প্রতিবন্ধী কিশোরী গ্রামের কয়েকজন নারীর সঙ্গে কাঠ সংগ্রহ করতে গিয়েছিলেন। সে সময় ওই ব্যক্তি তাদের ওপর হামলা চালায়। অন্য নারীরা পালিয়ে গেলেও ওই কিশোরী পেছনে পড়ে যায়। পরে অভিযুক্ত ব্যক্তি মানসিক প্রতিবন্ধী কিশোরীকে বনের ভেতর একা পেয়ে ধর্ষণ করে।

কিশোরীকে ধর্ষণের কথা শোনার পর বিষয়টি নিয়ে আলোচনার জন্য বৈঠকে বসেন গ্রামবাসী। সোমবার ওই ব্যক্তিকে শনাক্ত করা হয়। পরে তাকে ধরে এনে মারধরের পর আগুন লাগিয়ে হত্যা করে উত্তেজিত জনতা।

এ ঘটনায় পুলিশ একটি হত্যা মামলা দায়ের করেছে। তবে এখন পর্যন্ত কাউকে গ্রেফতার কিংবা কোনো সন্দেহভাজনকে শনাক্ত করা সম্ভব হয়নি।

ডেইলি বাংলাদেশ/জেডআর