পিঠ ব্যথা থেকে মুক্তি পেতে করণীয় 
Best Electronics

পিঠ ব্যথা থেকে মুক্তি পেতে করণীয় 

আঁখি আক্তার  ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১৬:১৩ ১৩ মে ২০১৯   আপডেট: ১৬:৩২ ১৩ মে ২০১৯

ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

আজকাল পিঠে ব্যথার সমস্যা অনেকেরই হয়ে থাকে। নারী পুরুষ উভয়ই এই সমস্যায় ভোগেন। অনেকে আবার খুব অল্প বয়সেই পিঠে ব্যথার শিকার হয়ে পড়েন। দেখা যায় পেইন কিলারে সাময়িকভাবে ব্যথা কমলেও আবার কিছুদিন পর আবার তা ফিরে আসে। অনেকেই ব্যথা সহ্য করতে না পেরে সার্জারির কথাও ভাবেন। কিন্তু জানেন কি, প্রতিদিন মাত্র ৮-১০ মিনিট ব্যায়াম করলেই দু’সপ্তাহের মধ্যে আপনি পিঠের ব্যথা থেকে মুক্তি পেতে পারেন। পিঠের ব্যথা কমানোর সবচেয়ে সহজ উপায় হচ্ছে ব্যায়াম। চলুন তবে জেনে নেয়া যাক পিঠ ব্যথা থেকে মুক্তি পেতে যা করণীয়- 

পিঠে ব্যথার সমস্যায় লোয়ার ব্যাক স্ট্রেচ খুব ভাল কাজ দেয়। এই ধরনের ব্যায়ামে লোয়ার ব্যাকের পেশিগুলো শক্তিশালী হয়ে ওঠে এবং নমনীয়তা বাড়ে। পিঠে ব্যথা কমাতে ‘গুড মর্নিং’ ব্যায়ামও খুব ভাল কাজ দেয়। এই ব্যায়াম করা হয় ওজনের সাহায্যে। তবে ব্যাক পেইনের সমস্যায় ব্যায়াম বেছে নেওয়ার আগে একজন ডাক্তার বা ফিটনেস এক্সপার্টের পরামর্শ নেয়া জরুরি। আপনার বয়স, শারীরিক সক্ষমতা, ব্যাথার ধরন, কমফোর্ট লেভেল এই সবকিছুর উপরে নির্ভর করবে কি ধরনের ব্যায়াম আপনার জন্য উপযুক্ত।

লক্ষণীয় কিছু বিষয়   
> সকালে ঘুম ভাঙার পর হঠাৎ করে উঠে বসবেন না। এতে পিঠে আঘাত লাগতে পারে। ঘুম ভাঙার পর প্রথমে পাশ ফিরুন, হাঁটু ভাঁজ করে রাখুন। এবার হাতের উপর ভর দিয়ে ধীরে ধীরে পা মেঝেতে নামিয়ে রেখে উঠে বসুন। তারপর পিঠ সোজা রেখে উঠে দাঁড়ান। 

> আপনার বসা, হাঁটা, শোয়ার ধরন কিন্তু পিঠের পেশির উপর প্রভাব ফেলে। তাই সবসবয় চেষ্টা করুন শরীরের সঠিক পশ্চার ধরে রাখতে। পিঠ সোজা রেখে বসুন, টান হয়ে হাঁটুন। ধীরে ধীরে এটাই আপনার অভ্যাসে দাঁড়িয়ে যাবে।

> সবসময় সোজা হয়ে দাঁড়ান। দাঁড়ানোর সময় পেট এবং বাট মাসলকে ভিতর দিকে টেনে রাখুন। পেটের মাসল টানটান করে রাখলে তা পিঠকে অনেকটাই সহযোগিতা করতে পারে। এই ধরনের অভ্যাসগুলো আপনার পশ্চার সুন্দর করার পাশাপাশি আপনার ব্যাক পেইনের সমস্যাকে দূর করতেও সাহায্য করবে।

 >পিঠ ব্যথা সমস্যার জন্য দীর্ঘক্ষণ বসে থাকা অনেকটাই দায়ী। আসলে বসে থাকা অবস্থায় পিঠের উপর সবচেয়ে বেশি চাপ পড়ে। তাই একটানা অনেকক্ষণ বসে থাকবেন না। নির্দিষ্ট সময় অন্তর উঠে দাঁড়ান, সম্ভব হলে একটু হেঁটে আসুন। চেয়ারে বসে সামনের দিকে ঝুঁকবেন না অথবা খুব বেশি পিছনে হেলে থাকবেন না বা পায়ের উপর পা তুলে বসবেন না। এই সবকিছুতেই পিঠের উপর চাপ বেশি পড়ে। চেষ্টা করুন কাজের জায়গায় একটা পা রাখার টুল রাখতে। এতে আপনার সোজা হয়ে বসতে সুবিধা হবে এবং থাইয়ের ভারটাও পিঠের উপর পড়বে না। 

ডেইলি বাংলাদেশ/এএ

Best Electronics