পাঁচদিন পর সেপটিক ট্যাংকে মিলল নিখোঁজ শিশুর মরদেহ 

পাঁচদিন পর সেপটিক ট্যাংকে মিলল নিখোঁজ শিশুর মরদেহ 

লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি  ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ২০:৩৪ ৯ মে ২০২০  

ফাইল ছবি

ফাইল ছবি

লক্ষ্মীপুরের চন্দ্রগঞ্জে টয়লেটের সেপটিক ট্যাংক থেকে ফারজানা সুলতানা রহিমা নামে দেড় বছরের এক শিশুর অর্ধগলিত মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

নিখোঁজের পাঁচদিন পর শনিবার দুপুরে তার মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য লক্ষ্মীপুর সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়। 

গত মঙ্গলবার দুপুর ১২টার দিকে চন্দ্রগঞ্জ ইউপির পূর্বরাজাপুর গ্রামের ফয়েজ আহাম্মদ মনুর নতুন বাড়ি থেকে শিশু রাহিমা নিখোঁজ হয়। দিনভর সম্ভাব্য সব জায়গায় খোঁজাখুঁজি করে তাকে না পেয়ে রাতে চন্দ্রগঞ্জ থানায় জিডি করেন নিখোঁজ শিশুর বাবা ফয়েজ আহাম্মদ মনু। 

শনিবার সকালে মরদেহের দুর্গন্ধ পেয়ে টয়লেটের সেপটিক ট্যাংকের কিছু অংশ ঢেকে রাখা টিন উল্টে দেখেন ভেতরে শিশু রাহিমার মরদেহ পড়ে আছে। পরে চন্দ্রগঞ্জ থানায় খবর দেয়া হলে পুলিশ গিয়ে মরদেহ উদ্ধার করে। এদিকে খবর পেয়ে লক্ষ্মীপুর সিআইডির একটি টিম এসে ঘটনাস্থল পরিদর্শন এবং বিভিন্ন আলামত সংগ্রহ করে।

চন্দ্রগঞ্জ থানার ওসি মো. জসিম উদ্দিন বলেন, শিশু রহিমা নিখোঁজের পাঁচ দিন পর তাদের নিজ বাড়ির টয়লেটের সেপটিক ট্যাংকেই তার মরদেহ পাওয়া গেছে। শিশুটি কিভাবে টয়লেটের ট্যাংকে ডুকলো, নাকি কেউ হত্যা করে সেখানে মরদেহ লুকিয়েছে। এসব কিছু জানা যাবে তদন্ত সাপেক্ষে।

ডেইলি বাংলাদেশ/জেএইচ