Alexa পরীক্ষায় নম্বর কেটে নেয়ায় স্কুল ছাত্রীর আত্মহত্যা

পরীক্ষায় নম্বর কেটে নেয়ায় স্কুল ছাত্রীর আত্মহত্যা

প্রকাশিত: ১৫:০৬ ২৫ জুলাই ২০১৮   আপডেট: ১৫:১৭ ২৫ জুলাই ২০১৮

সুমাইয়া আক্তার মালিহা নামে স্কুল ছাত্রী আত্মহত্যা করেছে    ফাইল ছবি

সুমাইয়া আক্তার মালিহা নামে স্কুল ছাত্রী আত্মহত্যা করেছে ফাইল ছবি

শাহজাহানপুর গুলবাগে সুমাইয়া আক্তার মালিহা (১৪) নামে স্কুল ছাত্রীর ঝুলন্ত মৃতদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। পরিবার বলছে, পরীক্ষার খাতায় নম্বর কেটে নেয়ায় মানসিকভাবে হতাশ হয়ে সে আত্মহত্যা করেছে।

মঙ্গলবার রাত ১০টার দিকে রাজধানীর শাহজাহানপুরের গুলবাগে পাওয়ারহাউজ এলাকার ২৭৬/বি নম্বর বাসার ৬ তলার ফ্ল্যাট থেকে মরদেহটি উদ্ধার করা হয়

শাহজাহানপুর থানার এসআই মো. মনিরুজ্জামান জানান, মঙ্গলবার রাতে খবর পেয়ে উক্ত বাসায় গিয়ে ফ্যানের সঙ্গে উড়না পেচানো ঝুলন্ত কিশোরীর মরদেহটি উদ্ধার করা হয়। আইনি প্রক্রিয়া শেষ করে বুধবার সকালে ময়নাতদন্তের জন্য ঢামেক হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

মৃতা মালিহার চাচাতো ভাই আলমগীর মিয়া জানান, মালিহা শহীদ ফারুক ইকবাল বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের দশম শ্রেনীর ছাত্রী ছিল। দশ বার দিন আগে পরীক্ষা শেষ হয়। পরীক্ষার সময় ব্যবসা শিক্ষার শিক্ষিকা মালিহার পরীক্ষার খাতা কেড়ে নেয় এবং মার্কও কমিয়ে দেয়। এতে মালিহা মানসিকভাবে ভেঙ্গে পড়ে। রেজাল্ট খারাপ হবে এমন আশংকায় পেয়ে বসে মালিহাকে। 

মঙ্গলবার রাতে মালিহার মা মুনমুন বেগম ছোট মেয়ে সামিহাকে নিয়ে পাশের কক্ষে ছিল। হঠাৎ মালিহা তার কক্ষের দরজা ভেতর থেকে বন্ধ করে দেয়। দীর্ঘক্ষন ডাকাডাকির পর কোনো সাড়া শব্দ না পেয়ে দরজা ভেঙ্গে ভেতরে প্রবেশ করে পরিবারের লোকজন দেখতে পায়, ফ্যানের সঙ্গে উড়না পেচিয়ে ঝুলছে মালিহা।

পরে স্থানীয় থানায় খবর দিলে পুলিশ এসে মরদেহ উদ্ধার করে। 

মৃত মালিহা বংশাল কায়েতটুলি এলাকার মোহাম্মদ আলীর মেয়ে। বর্তমানে তারা শাহজাহানপুরের গুলবাগের ওই বাড়িতে বসবাস করছে। 

ডেইলি বাংলাদেশ/ইকে/ এলকে