পরপর তিন মেয়ে, ৫২ দিনের শিশুকে হত্যা করলেন মা!

পরপর তিন মেয়ে, ৫২ দিনের শিশুকে হত্যা করলেন মা!

মিঠাপুকুর (রংপুর) প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১৪:১৩ ১৫ ফেব্রুয়ারি ২০২০  

প্রতীকী ছবি

প্রতীকী ছবি

রংপুরের মিঠাপুকুরে ৫২ দিন বয়সী মেয়ে শিশু সিনথিয়াকে পানিতে ডুবিয়ে হত্যার অভিযোগে মা খালদা বেগমকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

শুক্রবার সকালে গোপালপুর ইউপিতে এ ঘটনা ঘটে।

উপজেলার গোপালপুর ইউপির গোপিনাথপুর গ্রামের সুলতান মিয়ার আরো দুইজন মেয়ে আছে। তাদের একজনের বয়স ১৩ বছর। আরেজনের ছয় বছর। আবারো তার স্ত্রী খালেদা বেগম মেয়ে শিশুর জন্ম দেন। এ নিয়ে সংসারে অশান্তি লেগেই আছে। 

শুক্রবার সকালে হঠাৎ করে খালেদা কান্নাকাটি শুরু করেন। 

খালেদা বাড়ির লোকজনকে বলেন, তার ছোট সন্তানকে পাওয়া যাচ্ছেনা। কান্নার শব্দ শুনে প্রতিবেশীরা বাড়ির আশপাশে অনেক খোঁজাখুঁজির পর একটি পুকুরে ভাসমান অবস্থায় ওই শিশুর লাশ দেখতে পায়। পরে ওই শিশুর লাশ বাড়িতে নিয়ে দ্রুত দাফনের চেষ্টা চলে। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে শিশুর লাশ উদ্ধার করে মর্গে পাঠায়।

এলাকাবাসী বলেন, পরপর তিনজন মেয়ে শিশু জন্ম নেয়ায় সুলতানের পরিবারে অসন্তোষ বিরাজ করছিল। তাই শিশুটিকে পানিতে ডুবে হত্যা করা হয়। পরে পুকুরে ফেলা দেয়া হয়।

গোপালপুর ইউপি চেয়ারম্যান আমিরুল ইসলাম দিলীপ পাইকাড় বলেন, সকালে ঘুম থেকে উঠে ঘটনাটি শুনেছি। কিভাবে পুকুরে শিশুটির লাশ গেল। ঘটনাটি রহস্যজনক। 

মিঠাপুকুর থানার ওসি জাফর আলী বিশ্বাস বলেন, খবর পেয়ে ঘটনাস্থল থেকে শিশুর লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয়েছে। শিশুটির মা খালেদাকে গ্রেফতার করা হয়েছে। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে সে শিশুকে হত্যার কথা স্বীকার করেছে।
 

ডেইলি বাংলাদেশ/জেএইচ