নড়াইলে কলা রেখে খোসা বিক্রির ‘ইতিহাস’, ফেসবুকে তোলপাড়

নড়াইলে কলা রেখে খোসা বিক্রির ‘ইতিহাস’, ফেসবুকে তোলপাড়

সোশ্যাল মিডিয়া ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১৯:১৫ ২৮ জুলাই ২০২০   আপডেট: ০০:২৬ ২৯ জুলাই ২০২০

ব্যাগে ছিলানো কলা (বামে), মাঝে কলার কাঁদির খোসা (মাঝে), দোকানের সামনে ব্যাগে ছিলানো কলা (ডানে)।

ব্যাগে ছিলানো কলা (বামে), মাঝে কলার কাঁদির খোসা (মাঝে), দোকানের সামনে ব্যাগে ছিলানো কলা (ডানে)।

কলা রেখে খোসা বিক্রির গল্প শুধু ঠাকুরমার ঝুলিতেই থাকার ধারণা করা হয়। ঝুলির গল্পগুলো শুধুমাত্র বিনোদন দেয়। বাস্তবে এ রকম ঘটনা কখনই দেখা যায় না। কিন্তু সবাইকে অবাক করে কলা রেখে খোসা বিক্রির ঘটনা ঘটে গেল নড়াইলে। এ ঘটনাকে নতুন ইতিহাস বলে ফেসবুকে তোলপাড় শুরু হয়েছে। এ তোলপাড়ই বিনোদন দিচ্ছে নেটিজেনদের।

মঙ্গলবার নড়াইলের লোহাগড়ার কোটাকোল ইউপির চরকোটাকোল গ্রামের ভুলু মিয়ার দোকানের সামনে ঘটনাটি ঘটেছে।

সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রাপ্ত তথ্যানুযায়ী, স্থানীয় মো. রব্বেল নামের ব্যক্তি একটি পাকা কলার কাঁদি বিক্রয়ের জন্য দিঘোলিয়া বাজারে যাচ্ছিলেন। পথিমধ্যে বিক্রেতা রব্বেলের সঙ্গে সাক্ষাৎ হয় চর দিঘলিয়ার মনু মিয়ার।

সাক্ষাতে রব্বেলকে কলার হালির দাম জিজ্ঞেস করেন মনু মিয়া। উত্তরে রব্বেল জানান, প্রতি হালি ২০ টাকা। তখন আবার মনু মিয়া বলেন, কলার হালি সাত টাকা রাখেন।

এতে রব্বেল ক্রেতা মনু মিয়াকে জানান, সাত টাকা তো এক হালি কলার খোসার দাম। তখন মনু মিয়া সিদ্ধান্ত নেন যে, কলার খোসার হালি সাত টাকা দামে কিনবেন।

যেই ভাবা সেই কাজ। মনু মিয়া পাকা কলার কাঁদি থেকে খোসা নিয়ে ছিলানো কলা রব্বেলকে ফেরত দেন। একই সঙ্গে হালির হিসাবে মূল্যও পরিশোধ করেন মনু মিয়া।

এ ঘটনার খবর ও ঘটনার ছবি ফেসবুকে পোস্ট করার পরই ঝড়ের গতিতে ভাইরাল হয়। এ ঘটনা রূপকথাকে হার মানিয়ে নতুন ইতিহাস সৃষ্টি করেছে বলে নেটিজেনরা দাবি করছেন।

ডেইলি বাংলাদেশ/এমকেএ/জেডআর