নোয়াখালীতে বন্দুকযুদ্ধে ধর্ষণ মামলার আসামি নিহত

নোয়াখালীতে বন্দুকযুদ্ধে ধর্ষণ মামলার আসামি নিহত

কোম্পানীগঞ্জ(নোয়াখালী) প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১১:৪৩ ১১ জুলাই ২০২০   আপডেট: ১২:৩৪ ১১ জুলাই ২০২০

সেনবাগ থানা (ফাইল ছবি)

সেনবাগ থানা (ফাইল ছবি)

নোয়াখালীর সেনবাগ উপজেলায় পুলিশের সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে আকরাম নামে ধর্ষণ মামলার এক আসামি নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় তিন পুলিশ সদস্য আহত হয়েছেন। ঘটনাস্থল থেকে অস্ত্র ও গুলি উদ্ধার করা হয়েছে।

শুক্রবার রাত আড়াইটার দিকে উত্তর মানিকপুর এলাকায় এ বন্দুকযুদ্ধের ঘটনা ঘটে। আকরাম ওই এলাকার আব্দুল গফুরের ছেলে।
 
পুলিশ জানায়, গত ৬ জুন সকালে বাড়ির সামনে থেকে এক প্রতিবন্ধী কিশোরীকে তুলে নিয়ে গিয়ে ধর্ষণ করার অভিযোগ রয়েছে আকরাম, ফারুক ও ফাহিমসহ কয়েকজনের বিরুদ্ধে। গত ১১ জুন বৃহস্পতিবার রাতে কিশোরীর মা বাদী হয়ে সেনবাগ থানায় মামলা করেন। মামলার পরে রাতেই অভিযান চালিয়ে অভিযুক্ত ফাহিম ও ফারুককে গ্রেফতার করলেও মামলার প্রধান আসামি আকরাম পলাতক ছিলেন।

সেনবাগ থানার ওসি আব্দুল বাতেন মৃধা বলেন, আকরাম উত্তর মানিকপুর গ্রামে অবস্থান করছেন এমন সংবাদের ভিত্তিতে অভিযান চালায় পুলিশ। পুলিশ উত্তর মানিকপুর এলাকায় পৌঁছালে কোনো কিছু বুঝে উঠার আগে আকরাম ও তার সহযোগীরা পুলিশকে লক্ষ্য করে এলোপাতাড়ি গুলি ছুঁড়তে থাকে। আত্মরক্ষার্থে পুলিশও পাল্টা গুলি ছোড়ে। প্রায় ১০-১৫ মিনিট ধরে চলা বন্দুকযুদ্ধে টিকতে না পেরে পালিয়ে যায় হামলাকারীরা। 

ওসি আরো জানান, পরে পুলিশ ঘটনাস্থলে তল্লাশি চালিয়ে আকরামকে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখে। তাকে উদ্ধার করে নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে নিলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। ঘটনাস্থল থেকে একটি এলজি, দুইটি কার্তুজ, একটি চাইনিজ কুড়াল ও ছয়টি গুলির খোসা উদ্ধার করা হয়েছে। 

বন্দুকযুদ্ধে সেনবাগ থানার এক এএসআই ও দুই কনস্টেবল আহত হয়েছেন। পুলিশের ওপর হামলার ঘটনায় অজ্ঞাত সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে মামলার প্রস্তুতি চলছে।

ডেইলি বাংলাদেশ/আরএম