নুসরাত হত্যার দায় স্বীকার নুর-শামীমের

নুসরাত হত্যার দায় স্বীকার নুর-শামীমের

ফেনী প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ০২:১৪ ১৫ এপ্রিল ২০১৯   আপডেট: ১২:৫০ ১৫ এপ্রিল ২০১৯

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

ফেনীর সোনাগাজীতে মাদরাসাছাত্রী নুসরাত জাহান রাফিকে আগুনে পুড়িয়ে হত্যার দায় স্বীকার করে আদালতে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি দিয়েছেন মামলার এজহারভুক্ত আসামি নুর উদ্দিন ও শাহাদাত হোসেন শামীম।

রোববার ফেনীর সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট জাকির হোসাইনের আদালতে দুজন জবানবন্দি দেন। দুপুর ২টা ৫৫ মিনিট থেকে রাত পৌনে ১টা পর্যন্ত তা চলে।

১টা ৫ মিনিটে পিবিআই’র স্পেশাল ইনভেস্টিগেশন অ্যান্ড অপারেশনের এএসপি তাহেরুল হক চৌহান সংবাদমাধ্যমকে ব্রিফ করেন।

তিনি বলেন, পিবিআই এ মামলার দায়িত্ব পাওয়ার চার দিনের মধ্যে ঘটনার সঙ্গে সম্পৃক্তদের আইনের হাতে সোপর্দ করেছে। তদন্ত কর্মকর্তা আইনের মধ্যে থেকে আদালতের সামনে অভিযুক্তদের হাজির করেছেন। আদালত দীর্ঘ সময় ধরে মামলার এজহারভুক্ত আসামীদের সিআরপিসির ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি পরীক্ষা-নিরীক্ষা ও জিজ্ঞাসা করেছেন। আসামি দুজন আদালতের কাছে নিজের স্বীকারোক্তি দিয়েছেন। তারা পুরো ঘটনাটি আদালতকে জানিয়েছেন। কিভাবে আগুন দেয়া হয়েছে, কারা ঘটনাটি ঘটিয়েছেন, কোন আঙ্গিকে ঘটানো হয়েছে, সব বিষয়গুলো এসেছে জবানবন্দিতে। শিগগিরই আরো বিস্তারিত সংবাদমাধ্যমকে জানানো হবে।

এএসপি তাহেরুল বলেন, আসামিরা অপরাধ স্বীকার করেছেন। কয়েকজন সংশ্লিষ্ট ছিল, পরিকল্পনায় কারা অংশ নিয়েছেন। তারা জেলখানা (সিরাজ উদ-দৌলা) থেকে হুকুম পেয়েছেন।

পিবিআই কর্মকর্তা বলেন, এখন পর্যন্ত এ হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে জড়িত ১৩ জনের নাম এসেছে। এছাড়া বিচ্ছিন্নভাবে কিছু নাম এসেছে। আমরা যাচাই-বাছাই ও অন্যান্য তথ্য-উপাত্ত খতিয়ে দেখে, সে বিষয়ে নিশ্চিত হতে পারবো।

চৌহান বলেন, নুসরাতের গায়ে আগুন দেয়ার সঙ্গে সরাসরি যে চারজন জড়িত, তাদের সবাইকে গ্রেফতার করা সম্ভব হয়নি। দুজন গ্রেফতার আছে। বাকি দু জনকে গ্রেফতারে অভিযান চলছে। যেকোনো সময় ভালো খবর জানানো যাবে।

ডেইলি বাংলাদেশ/আরএ/এমআর/এলকে