Alexa নিয়মিত রাত জাগছেন? মৃত্যু দুয়ারে কড়া নাড়ছে: গবেষণার তথ্য

নিয়মিত রাত জাগছেন? মৃত্যু দুয়ারে কড়া নাড়ছে: গবেষণার তথ্য

স্বাস্থ্য ও চিকিৎসা ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১৬:২২ ২৫ জুন ২০১৯  

ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

বর্তমান প্রজেন্মের অনেকেই রাত জেগে কাজ করায়ে অভ্যস্ত হয়ে পড়েছে! লেখাপড়া থেকে শুরু করে অফিসের কাজ এমনকি রাত জেগে গল্পের বই ও সিনেমা দেখা ইত্যাদি কাজে হরমামেশা সবাই ব্যস্ত। এছাড়াও রাত জেগে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে সরব থাকতেও কেউ কারো চেয়ে পিছিয়ে নেই। তবে জানেন কি? এই রাত জাগার অভ্যাস আপনাকে মৃত্যুর দুয়ারে ঠেলে দিচ্ছে।

যারা অনেক রাত পর্যন্ত জেগে থাকেন, তাদের ৯০ ভাগই নানা মানসিক রোগের শিকার। আর যারা সকালে দেরি করে ওঠেন, তাদের অকাল মৃত্যুর ঝুঁকি বেড়ে যায় কয়েকগুণ। শুধু তাই নয়, তাদের গড় আয়ু নিয়মিত সকালে ওঠা মানুষের চেয়ে সাড়ে ছয় বছর কমে যায়।

সম্প্রতি যুক্তরাজ্যভিত্তিক একটি প্রতিষ্ঠানের গবেষণায় এসব তথ্য বেরিয়ে আসে। যুক্তরাজ্যের সূরি বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্রোনোবায়োলজিক্যাল অধ্যাপক ও গবেষক ম্যালকম ভন স্যাচেন্জ এর দাবি, দেরি করে ঘুমাতে যাওয়া এবং সকালে দেরি করে ওঠার অভ্যাস থাকলে অকাল মৃত্যুর ঝুঁকি অনেক বাড়ে।

নিয়মিত সকালে ওঠেন, মাঝে মাঝে সকালে ওঠেন, মাঝে মাঝে দেরি করে ঘুমান এবং যারা নিয়মিত রাত জাগেন- এ রকম ৪ ধরনের মানুষের ওপর গবেষণা চালায় প্রতিষ্ঠানটি। যাতে অংশ নেন যুক্তরাজ্যের ৩৮ থেকে ৭৩ বছর বয়সী ৪ লাখ ৩৩ হাজার মানুষ।

গবেষণা বলছে, যারা নিয়মিত সকালে ঘুম থেকে ওঠেন তাদের মৃত্যুহার সবচেয়ে কম। আর যাদের দেহঘড়ি অনিয়মে চলে তাদের এই ঝুঁকি অনেক বেশি থাকে। তাছাড়া যারা দেরি করে ঘুম থেকে ওঠেন, তারা নানা ধরনের শারীরিক ও মানসিক জটিলতায় ভোগেন।
 
রাত জাগার বদঅভ্যাস যারা গড়ে তুলেছেন তাদের ৯০ শতাংশই মানসিক রোগের শিকার, ৩০ শতাংশের থাকে ডায়াবেটিসে আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা। এছাড়া স্নায়ুবিক সমস্যা থেকে শুরু করে অন্ত্রের রোগে আক্রান্ত হওয়ার ঝুঁকি অনেকাংশে বেড়ে যায় বলে জানাচ্ছে গবেষণা।

তাই সুস্থ জীবনযাপনের জন্য প্রতিদিন একই সময় ঘুমানো ও ঘুম থেকে ওঠা, ঘুমের সময় মোবাইল ও ল্যাপটব ব্যবহার না করার পরামর্শ দিয়েছেন গবেষকরা।

ডেইলি বাংলাদেশ/জেএমএস