Alexa ‘ভাই চলে গেলে বোন হতভাগা হয়ে যায়, তাই নারে ভাইয়া’

‘ভাই চলে গেলে বোন হতভাগা হয়ে যায়, তাই নারে ভাইয়া’

সোশ্যাল মিডিয়া ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১১:৫৫ ১৮ অক্টোবর ২০১৯   আপডেট: ১২:০০ ১৮ অক্টোবর ২০১৯

ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

বরগুনায় প্রকাশ্যে দিবালোকে নির্মম হত্যাকাণ্ডের শিকার রিফাত শরীফের ২৬তম জন্মদিন ছিল বৃহস্পতিবার। পরিবারের সদস্যরা রিফাতকে হারানোর এ শোক বয়ে বেড়াবে আজীবন।

জন্মদিনে রিফাতের শিশুকালের ছবি আপলোড করে একমাত্র বোন ইসরাত জাহান মৌ ভাইকে স্মরণ করে আপ্লুত হয়েছেন।

ভাইকে স্মরণ করে ভাই-বোনের ছোটবেলাসহ বিভিন্ন সময়ের ছবি ফেসবুকে পোস্ট করে মৌ লিখেছেন, ‘শুভ জন্মদিন ভাইয়া। চার মাস আগে এই দিনটা নিয়ে অনেক প্ল্যান করছিলাম। কিন্তু আল্লাহ কবুল করল নারে ভাইয়া। ভাবছিলাম এবার এই দিনটা মনে করব না। কিন্তু আম্মুর জন্য পারলাম না। সকালে নামাজের পর তোর কবরের কাছ থেকে এসে বলে, তোর ভাইয়ার আজ জন্মদিন।’

মৌ আরো লিখেছেন, ‘শেষ পর্যন্ত তোকে ভুলে থাকতে পারলাম না আমরা। ভাইয়া তোর হাসিটা ছিল আমাদের ভালো থাকার কারণ। ছোটবেলা যদি ফুরিয়ে না যেত, কতই না ভালো হতো। তাইনা রে ভাইয়া। অনেক অনেক দোয়া করি, আল্লাহ যেন তোকে জান্নাতুল ফেরদৌসে রাখেন। বাবা-মা আল্লাহর কাছে চলে গেলে সন্তান এতিম হয়ে যায়। আর ভাই আল্লাহর কাছে চলে গেলে বোন হতভাগা হয়ে যায়, তাই নারে ভাইয়া?’

‘আমি এখন সেই হতভাগাদের দলে। পৃথিবীর সবচেয়ে পবিত্র ভালোবাসা ভাই-বোনের ভালোবাসা। সেই সম্পর্ককে কিছু মানুষরূপী জানোয়ার ইতি টেনে দিল। ভালো থাকুক পৃথিবীর সব ভাই-বোন। দোয়া করি আল্লাহর কাছে- যেন তাদের এভাবে কখনো কেউ আলাদা না করে দেয়’।

১৯৯৪ সালের ১৭ অক্টোবর খুলনা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে রাত ১১টা পাঁচ মিনিটে জন্মগ্রহণ করেছিলেন রিফাত শরীফ। ২৬ জুন সকালে বরগুনা সরকারি কলেজের সামনে সন্ত্রাসীরা রিফাত শরীফকে প্রকাশ্যে রামদা দিয়ে কুপিয়ে গুরুতর আহত করে। পরে বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে মারা যান তিনি। এ ঘটনায় রিফাতের বাবা দুলাল শরীফ বাদী হয়ে ১২ জনের নাম উল্লেখসহ পাঁচ-ছয় জনকে অজ্ঞাত আসামি করে বরগুনা থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেন।

ডেইলি বাংলাদেশ/এমকে