Alexa নিঃসঙ্গতা কাটাতে ভাড়ায় পাবেন মানুষ, শুধু ৮৫০ টাকা!

নিঃসঙ্গতা কাটাতে ভাড়ায় পাবেন মানুষ, শুধু ৮৫০ টাকা!

মজার খবর ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ০৯:৩৮ ৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯   আপডেট: ০৯:৪৩ ৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯

ফাইল ছবি

ফাইল ছবি

বর্তমান সময়ে নানা কারণেই বহু মানুষকে একা বা নিঃসঙ্গ থাকতে হয়। তাই নিজের মনের কথা খুলে বলা যায়, এমন কাউকে যদি টাকা দিয়ে পাওয়া যায়, তাহলে তো ভালই হয়। আর যদি ওই মানুষটি ঘরের সমস্ত কাজকর্ম করে দেয়, তাহলে তো সোনায় সোহাগা।

আর এমনটাই সম্ভব প্রতি ঘণ্টা শুধু ৮৫০ টাকা ভাড়ার বিনিময়ে!  জাপানে মিলছে এ সেবা।

শুরুটা কীভাবে হলো

আইডিয়াটা মাথায় আসে ৫০ বছর বয়সী তাকানোবু নিশিমোতোর। সময়টা ২০১২ সাল। আইডিয়া বের করার পাশাপাশি ঝটপট ‘ওশান রেন্টাল’ নামে একটা অনলাইন সেবা সংস্থাও খুলে ফেলেন তিনি। নিজের বাড়ি থেকেই এই অনলাইল সেবা সংস্থাটি শুরু করেছিলেন তাকানোবু। 

অনলাইন সেবা সংস্থার নাম ‘ওশান রেন্টাল’ হওয়ার কারণ হিসেবে তাকানোবু জানান, জাপানে ‘ওশান’র অর্থ হল মধ্যবয়স্ক। তাই এই নাম বেছে নেয়া হয়েছে।

জাপানে মধ্যবয়স্ক মানুষদের নিয়ে অনেকেই ঠাট্টা-তামাশায় মেতে উঠেন। এ সময় মাথায় চুল পাতলা হয়ে যায়, শরীরও ভারী হতে শুরু করে। এসবের মধ্যে যদি একাকী হন, তবে তো কথাই নেই! মনের কথা শোনানোর জন্য কাউকে পাশে মেলে না। এ ধরনের মধ্যবয়স্কদের জন্যই সেবা দিতেই ‘ওশান রেন্টাল’ শুরু করেন তাকানোবু।

কী সেবা দেয় ‘ওশান রেন্টাল’?

মূলত নিঃসঙ্গ মানুষের দিকে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দেয়াই ‘ওশান রেন্টাল’ এর কাজ। একাকী মানুষদের ঘর-সংসারের কাজ করার পাশাপাশি তাদের সঙ্গে সময় কাটানো, বিনোদন- এসবই ব্যবস্থা করে এ সংস্থা।

খরচ কত

অনেক সেবা মিললেও খরচটাও কিন্তু খুব বেশি নয়। সেবা পেতে খরচ করতে হবে ঘণ্টায় শুধু ১০ ডলার বা ৮৫০ টাকা।

সংস্থাটি যেভাবে কাজ করে

জাপানে বসবাসকারীদের ‘ওশান রেন্টাল’-এর সেবা গ্রহণের ইচ্ছা জানাতে হবে। তবেই ওই সংস্থা থেকে একজন মধ্যবয়স্ক ব্যক্তি আপনার কাছে পৌঁছে যাবেন। যিনি মন দিয়ে আপনার কথা শুনবেন। আপনার ঘরের যাবতীয় কাজকর্ম করে দেবেন। পাশাপাশি নানা ধরনের পরামর্শও দেবেন। 

এক কথায় বলা যায়, ‘ওশান রেন্টাল’-এর কর্মীরা অল ইন ওয়ান সেবা দিয়ে থাকেন। এর মধ্যে একাকী মানুষজনের ঘর-সংসারের কাজকর্ম করে বা পরামর্শ দিয়েই থেমে থাকেন না, তারা পার্টি বা পানশালাতেও সঙ্গ দেন। এছাড়া প্রেমঘটিত বা অফিসের সমস্যার সমাধান করে দেন। অথবা আপনার বাড়ির ফার্নিচার এক ঘর থেকে অন্যত্র সরাতেও এই সংস্থার সেবা নেয়া যায়।

ডেইলি বাংলাদেশ/জেডআর