Alexa নিখুঁতভাবে মেকআপ করতে মনে রাখুন এই বিষয়গুলো…

নিখুঁতভাবে মেকআপ করতে মনে রাখুন এই বিষয়গুলো…

লাইফস্টাইল ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১৩:৪৬ ৫ আগস্ট ২০১৯   আপডেট: ১৪:৩৫ ৫ আগস্ট ২০১৯

দিলারা হানিফ পূর্ণিমা

দিলারা হানিফ পূর্ণিমা

নিজেকে আরো বেশি আকর্ষণীয় করতে কম বেশি সব নারীরাই মেকআপ করে থাকে। মেকআপ সবাই করতে পারলেও, ভারী বা হালকা মেকআপের ক্ষেত্রে কিছু ভুল কম-বেশি সকলেই করে থাকে। আর এই ছোটো খাটো ভূলের কারণে সৌন্দর্য নষ্ট হয়ে যায়। তাই মেকআপ করার সময় কয়েকটি বিষয়ে খেয়াল রাখলে খুব সহজেই এড়িয়ে যাওয়া সম্ভব এই ভুলগুলো। চলুন তবে জেনে নেয়া যাক মেকআপ নিখুঁতভাবে করার উপায়-  

ত্বক শুষ্ক রেখে মেকআপ করা
মেকআপ শুরু করার আগে অবশ্যই ত্বক ময়েশ্চারাইজ করে নিতে হবে। মেকআপ করার প্রথম ভুল হলো শুষ্ক ত্বকে মেকআপ করা। এর ফলে ত্বক সুন্দর দেখানোর পরিবর্তে ত্বক নিস্প্রাণ, বয়স্ক ও ক্লান্ত দেখায়। মেকআপ করার আগে ত্বকের সাথে মানানসই ময়েশ্চারাইজার দিয়ে ত্বক হাইড্রেট করে নিন। এতে ত্বক কোমল হয়ে যাবে।

অতিরিক্ত ফাউন্ডেশন ব্যবহার করা
মেকআপ করার জন্য অনেকেই বেশি পরিমাণে ফাউন্ডেশন ব্যবহার করে থাকে যা একেবারে ভুল। অনেকের ধারণা বেশি পরিমাণে ফাউন্ডেশন ব্যবহারে মেকআপ ভালো হয় এবং ত্বক ফর্সা দেখাবে। কিন্তু এ কথাটি একদম ভুল। ফাউন্ডেশন বেশি পরিমাণে ব্যবহার করলে ত্বকের ওপরে পরত পরে যায় যা চেহারায় কেকি ভাব নিয়ে আসে। যার ফলে মেকআপের সৌন্দ্যর্য নষ্ট করে দেয়।

কন্সিলার ব্যবহার
কনসিলার নাকি ফাউন্ডেশন? অনেকেই জানেন না কোনটি আগে ব্যবহার করতে হয়। কনসিলার ব্যবহার নিয়ে সবারই দ্বিধা থাকে। মনে রাখতে হবে চেহারার দাগ ঢাকার জন্য প্রথমে ফাউন্ডেশন ও এরপর কনসিলার ব্যবহার করতে হবে। এটা করলে দাগ ভালোমতো ঢেকে যাবে।

তবে কনসিলার ব্যবহারের সময় দুটি কথা মনে রাখবেন। তাহলো খুব বেশি কনসিলার ব্যবহার করা যাবে না । তাহলে চোখের নিচে বয়সের ছাপ পড়ে যাবে। আর অন্যটি হলো কনসিলারের সাহায্যে মুখের প্রায় সব ধরণের দাগ ঢাকা যায়। ব্রণের দাগ, কাটা দাগ, র‌্যাশ, কালো ছোপ দাগ সহ সকল দাগ কনসিলার দিয়ে ঢেকে ফেলা যায়।

ব্লাশ অন এবং হাইলাইটার ব্যবহারে আধিক্য
কষ্ট করে মেকআপ করলেন কিন্তু সেই মেকআপ একমুহূর্তেই হাস্যকর হয়ে উঠতে পারে। যদি আপনি অধিক পরিমাণে ব্লাশ অন এবং হাইলাইটার ব্যবহার করেন। এই দুইটি জিনিস অধিক পরিমাণে ব্যবহারের ফলে সৌন্দর্য নষ্ট হবে নির্ঘাত! তা যদি না চান তাহলে খেয়াল রাখবেন অতিরিক্ত ব্লাশ অন এবং হাইলাইটারের ব্যবহার যেন না হয়।

মাশকারার সঠিক ব্যবহার
মাশকারার ব্যবহার ঠিকমতো না হলে ত্বকের সাজটা বাজে দেখায়। তাই মাশকারা কেনার সময় মনে রাখতে হবে, মাশকারার রঙ যেন আইভ্রুর রঙের থেকে ২ সেড গাঢ় হয়। আই ল্যাশে মাশকারা দুই কোট বা দুই বার ব্যবহার করুন। এতে আইল্যাশ ঘন দেখাবে। আর মাশকারা ব্যবহার না করলে চোখ খালি দেখাবে।

লিপলাইনার ভালোভাবে ব্লেন্ড না করা
লিপলাইনার ব্যবহারের আগে অনেকে লিপলাইনার ব্যবহার করেন যা একেবারে ঠিক না। লিপলাইনার ব্যবহার করতে হয় লিপস্টিক ব্যবহারের পর। অনেকে আবার লিপস্টিকের চেয়ে গাঢ় অথবা অন্য রঙের লিপলাইনার ব্যবহার করে থাকেন। যা পুরো সৌন্দর্য্যটাই নষ্ট করে দিতে পারে। সেক্ষেত্রে লিপস্টিকের থেকে এক সেড গাঢ় রঙের লাইনার ব্যবহার করুন। এরপর পুরো ঠোঁটে লিপলাইনার ভালোভাবে ব্লেন্ড করে নিন।

ভুল রঙের লিপস্টিক পছন্দ না করা
অনেকেই ভাবেন মেকআপ শেষে যেকোনো রঙের লিপস্টিক ব্যবহার করলেই হয়ে যাবে। কিন্তু সেই ধারণা একেবারেই ভুল। লিপস্টিকের রঙ পছন্দ করুন চোখের সাজের দিকে খেয়াল রেখে। চোখের সাজ যদি বেশি গর্জিয়াস হয় তাহলে লিপস্টিক দিন হালকা রঙের। আর চোখের সাজ একেবারে হালকা হলে সেক্ষেত্রে গাঢ় রঙের লিপস্টিক পরতে পারেন।

অল্প আলোতে মেকআপ করা
সবসময় বেশি আলোতে মেকআপ করতে হয়। তবে প্রাকৃতিক আলোতে মেকআপ করা সবচেয়ে ভালো। ঘরে লাইটের আলোতে মেকআপ করলে কিছু সময় আলো বেশি আবার কমও থাকে। তাই মেকআপের সামঞ্জস্য বোঝা যায় না। এছাড়া অতিরিক্ত আলোতে মেকআপ করে বাহিরে গায়ের রঙের সঙ্গে ত্বকের রঙ মিলে না এতে খুব খারাপ দেখায়।

সব সময় মেকআপ করতে যাওয়ার আগে এই বিষয়গুলো মাথায় রাখুন। আর দিনের বেলায় মেকআপ করার সময় প্রাকৃতিক আলোতে মেকআপ করার চেষ্টা করুন। আর তা সম্ভব না হলে লাইটের আলোতে মেকআপ করে নিন। দিনের বেলার জন্য হালকা মেকআপ এবং রাতের জন্য গর্জিয়াস মেকআপ করতে হয়। মেকআপ করার সময় এই সমস্ত ভুলগুলো এড়িয়ে যাওয়ার চেষ্টা করুন। এতে করে মেকআপ হবে নিঁখুত আর আপনি হয়ে উঠবেন অনন্যা।

ডেইলি বাংলাদেশ/এএ

Best Electronics
Best Electronics