না খেলেই শত কোটি টাকা!

না খেলেই শত কোটি টাকা!

স্পোর্টস ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১১:২৪ ১২ জুলাই ২০২০  

উইম্বলডন কোর্ট

উইম্বলডন কোর্ট

করোনাভাইরাসের কারণে বিশ্বের অনেক ক্রীড়া ইভেন্টই বাতিল হয়ে গেছে। সেই তালিকায় রয়েছে টেনিসের ঐতিহ্যবাহী গ্রান্ড স্লাম প্রতিযোগিতা উইম্বলডনও। করোনা না থাকলে হয়তো চলতি সপ্তাহেই দেখা যেতো মর্যাদাপূর্ণ এই টুর্নামেন্টের ফাইনাল। কিন্তু আসর বাতিল হওয়ায় বিমা কোম্পানির কাছ থেকে বিপুল অংকের অর্থ পাচ্ছে উইম্বলডনের আয়োজক অল ইংল্যান্ড ক্লাব। 

প্রায় শত বছরের পুরনো এই আসরের জন্য প্রতিবছরই বিমা করে আসছিল অল ইংল্যান্ড ক্লাব। শর্ত ছিল কখনো মহামারির কারণে প্রতিযোগিতা পণ্ড হলে আর্থিক ক্ষতিপূরণ পাওয়া যাবে। অবশেষে চলতি বছর করোনার কারণে এবারের আসরটি বাতিল হলে সেই ক্ষতিপূরণ পাওয়ার সুযোগ তৈরি হয়। গড়িমসি না করে এরই মধ্যে প্রাপ্য অর্থ ১০ মিলিয়ন পাউন্ড দিয়ে দিয়েছে বিমা সংস্থা। বাংলাদেশি মুদ্রামানে যার পরিমাণ প্রায় ১০৭ কোটি টাকা!

তবে এই বিপুল পরিমাণ অর্থ নিজেদের কোষাগারে ভরছে না উইম্বলডন কর্তৃপক্ষ। র‍্যাংকিং অনুযায়ী সব খেলোয়াড়কে এই টাকা ভাগ করে দিচ্ছে তারা। এই টুর্নামেন্টে এবার সবমিলিয়ে ৬২০ জন খেলোয়াড় অংশগ্রহণের কথা ছিল। অল ইংল্যান্ড ক্লাব জানিয়েছে, খেলা না হলেও র‍্যাংকিংয়ের উপর নির্ভর করে যোগ্যতামান পর্বে অংশ নিতে পারতেন এমন ২২৪ জন খেলোয়াড়ের প্রত্যেককে ১২,৫০০ পাউন্ড (বাংলাদেশি মুদ্রায় প্রায় সাড়ে ১৩ লক্ষ) করে দেয়া হবে। 

সিঙ্গেলসের মূল পর্বে সরাসরি খেলতে পারতেন এমন ২৫৬ জন খেলোয়াড়ের প্রত্যেককে দেয়া হবে ২৫,০০০ পাউন্ড (বাংলাদেশি মুদ্রায় প্রায় ২৭ লক্ষ টাকা)। ডাবলসে প্রত্যেকে পাবেন ৬,২৫০ পাউন্ড (বাংলাদেশি মুদ্রায় প্রায় সোয়া ৭ লক্ষ), হুইলচেয়ার ইভেন্টে ৬,০০০ পাউন্ড (বাংলাদেশি মুদ্রায় প্রায় সাড়ে ৬ লক্ষের বেশি)। এছাড়া কোয়াড হুইলচেয়ারে প্রত্যেকের জন্য ৫,০০০ পাউন্ড (বাংলাদেশি মুদ্রায় সোয়া পাঁচ লক্ষের বেশি) করে বরাদ্দ হচ্ছে। 

অন্তত একটি ম্যাচ না হওয়ার পরেও এমন অভিনব পুরস্কার বিতরণ করায় টেনিস দুনিয়ার প্রশংসায় ভাসছে উইম্বলডন কর্তৃপক্ষ। বলা যেতেই পারে, এবারের আসরের চ্যাম্পিয়ন উইম্বলডন!

ডেইলি বাংলাদেশ/এএল