বিএনপিকে স্বাধীনতা বিরোধীদের ত্যাগ করে মুজিববর্ষ পালনের আহ্বান

বিএনপিকে স্বাধীনতা বিরোধীদের ত্যাগ করে মুজিববর্ষ পালনের আহ্বান

নিজস্ব প্রতিবেদক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ২০:৫৭ ১ মার্চ ২০২০   আপডেট: ২১:২০ ১ মার্চ ২০২০

সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে কেন্দ্রীয় ১৪ দল আয়োজিত নারী ও শিশু নির্যাতন প্রতিবাদ সভায় বক্তব্য দেন আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য ও ১৪ দলের মুখপাত্র মোহাম্মদ নাসিম- ডেইলি বাংলাদেশ

সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে কেন্দ্রীয় ১৪ দল আয়োজিত নারী ও শিশু নির্যাতন প্রতিবাদ সভায় বক্তব্য দেন আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য ও ১৪ দলের মুখপাত্র মোহাম্মদ নাসিম- ডেইলি বাংলাদেশ

স্বাধীনতা বিরোধীদের ত্যাগ করে বিএনপিকে মুজিববর্ষ পালনের আহ্বান জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য ও ১৪ দলের মুখপাত্র মোহাম্মদ নাসিম। তিনি বলেন, বিএনপি মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় বিশ্বাসী হলে অবশ্যই মুজিববর্ষ পালন করবে। 

রোববার সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে কেন্দ্রীয় ১৪ দল আয়োজিত নারী ও শিশু নির্যাতন প্রতিবাদ সভায় এ আহ্বান জানান তিনি।

মোহাম্মদ নাসিম বলেন, বিএনপিকে বলবো মুক্তিযুদ্ধের বিরোধীদের পক্ষ না নিয়ে তাদের ত্যাগ করে স্বাধীনতার স্বপক্ষে যোগ দিন। স্বাধীনতার স্বপক্ষে যোগ দিয়ে মুজিববর্ষ পালন করুন। ১৭ মার্চ দেশের সব মানুষ মুজিববর্ষ পালন করবে, কিন্তু মুক্তিযুদ্ধের বিপক্ষের শক্তি পালন করবে না। তাই বিএনপি তাদের ত্যাগ করে মুজিববর্ষ পালন করার আহ্বান জানাচ্ছি। 

এ সময় নারী ও শিশু নির্যাতন আইনে মৃত্যুদণ্ড বিধানের দাবি জানিয়ে তিনি বলেন, নারী ও শিশু নির্যাতনের বিরুদ্ধে যে আইন আছে তা আরো কঠোর করে মৃত্যুদণ্ড বিধান রাখার দাবি জানাচ্ছি। একইসঙ্গে দ্রুত সময়ে বিচার কার্যকর করার আহ্বানও জানাচ্ছি। তা না হলে এসব নির্যাতন কারীরা আরো সুযোগ পেয়ে যাবে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আমরা অবশ্যই এ দেশে নারী ও শিশু নির্যাতন বন্ধ করতে পারবে।

মোহাম্মদ নাসিমের সভাপতিত্বে প্রতিবাদ সভায় আরো উপস্থিত ছিলেন- আওয়ামী লীগের উপদেষ্টামণ্ডলীর সদস্য আমির হোসেন আমু, সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য মতিয়া চৌধুরী, শাজাহান খান, কার্যনিবাহী সদস্য মোস্তফা জালাল মহিউদ্দিন, অ্যাডভোকেট কামরুল ইসলাম, তথ্য প্রতিমন্ত্রী মুরাদ হাসান, ওয়ার্কাস পার্টির সভাপতি রাশেদ খান মেনন, তরিকত ফেডারেশনের চেয়ারম্যান নজিবুল বশর মাজইভান্ডরি, আওয়ামী লীগের সহযোগী ও ভ্রাতৃপ্রতিম সংগঠনের নেতাকর্মীসহ ১৪ দলের নেতাকর্মীরা।

ডেইলি বাংলাদেশ/জাআ/আরএইচ