Alexa নামাজের জন্য দিক নয়, কাবা-ই আবশ্যক

নামাজের জন্য দিক নয়, কাবা-ই আবশ্যক

গাজী মো. রুম্মান ওয়াহেদ ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১৬:৪৬ ৫ ডিসেম্বর ২০১৯  

পবিত্র কাবা ঘর

পবিত্র কাবা ঘর

কিবলা হচ্ছে নামাজের জন্য মুসলমানদের যেদিকে মুখ করা দাঁড়াতে হয়, ঠিক সেই দিকটি। 

মুসলমানদের জন্য কিবলা হচ্ছে মক্কায় অবস্থিত মসজিদুল হারাম, যা কাবা শরিফ নামে বেশি পরিচিত। তবে মজার ব্যাপার হলো, প্রথমে কাবা শরিফ কিবলা ছিল না। বরং প্রথম কিবলা ছিল জেরুজালেমে অবস্থিত মসজিদুল আকসা। 

মদিনায় হিজরতের ষোল মাস পর কোরআনের নির্দেশনা অনুযায়ী কিবলা পরিবর্তিত হয়ে বর্তমানের কিবলা অর্থাৎ কাবা শরিফ কিবলা হিসেবে নির্ধারিত হয়।

মহান রাব্বুল আলামিন আল্লাহ তায়ালা কিবলা সম্পর্কে পবিত্র কোরআনুল কারিমে ইরশাদ করেন,

قَدْ نَرَى تَقَلُّبَ وَجْهِكَ فِي السَّمَاء فَلَنُوَلِّيَنَّكَ قِبْلَةً تَرْضَاهَا فَوَلِّ وَجْهَكَ شَطْرَ الْمَسْجِدِ الْحَرَامِ وَحَيْثُ مَا كُنتُمْ فَوَلُّواْ وُجُوِهَكُمْ شَطْرَهُ وَإِنَّ الَّذِينَ أُوْتُواْ الْكِتَابَ لَيَعْلَمُونَ أَنَّهُ الْحَقُّ مِن رَّبِّهِمْ وَمَا اللّهُ بِغَافِلٍ عَمَّا يَعْمَلُونَ

‘নিশ্চয়ই আমি আপনাকে বার বার আকাশের দিকে তাকাতে দেখি। অতএব, অবশ্যই আমি আপনাকে সে কেবলার দিকেই ঘুরিয়ে দেব যাকে আপনি পছন্দ করেন। এখন আপনি মসজিদুল-হারামের দিকে মুখ করুন এবং তোমরা যেখানেই থাক, সেদিকে মুখ কর। যারা আহলে-কিতাব, তারা অবশ্যই জানে যে, এটাই ঠিক পালনকর্তার পক্ষ থেকে। আল্লাহ বেখবর নন, সে সমস্ত কর্ম সম্পর্কে যা তারা করে।’ (সূরা: বাকারা, আয়াত: ১৪৪)। 

সূরা বাকারার উক্ত আয়াত এটি পরিষ্কার যে, কিবলা হচ্ছে সেদিক, যেদিকে রয়েছে মসজিদে হারাম অর্থাৎ কাবা। আর এই আয়াতে কিন্তু কোনো দিক নির্দিষ্ট করে দেয়া হয়নি। সুতরাং কোনো দিককে কিবলা ভাবাটা মস্ত বড় ভুল হবে। আমরা বাংলাদেশের মানুষ যারা পশ্চিম দিককে কিবলা ভাবী। এইটা একদিকে যেমন ঠিক অন্যদিকে তেমন ভুল। কোনো নির্দিষ্ট দিক আসলে কিবলা নয়। যেহেতু কিবলা কাবা শরীফ যেদিক সেদিককে বোঝায়।

এইদিক দিক দিয়ে কাবা বাংলাদেশ থেকে পশ্চিম দিকে থাকায় কিবলাকে কিবলা না বলে পশ্চিম দিক বলেই ডাকা হয়। কিন্তু এটি মনে রাখা জরুরি কিবলা মানে পশ্চিম দিক না। কিবলা বলতে আলাদাভাবে পূর্ব, পশ্চিম, বা উত্তর, দক্ষিণকে বোঝায় না। কাবা যেদিক কিবলাও হবে সেদিক।

ডেইলি বাংলাদেশ/আরএজে