Alexa ১৫ দিনের নবজাতককে হাসপাতালে ফেলে উধাও মা!

১৫ দিনের নবজাতককে হাসপাতালে ফেলে উধাও মা!

চাঁদপুর প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১৮:৫৮ ৭ ডিসেম্বর ২০১৯   আপডেট: ০৩:২২ ৮ ডিসেম্বর ২০১৯

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

চাঁদপুর জেনারেল হাসপাতালে ১৫ দিনের নবজাতককে ফেলে পালিয়ে গেলেন এক মা। শিশুটিকে দেখতে হাসপাতালে ছুটে যাচ্ছেন অনেক নিঃসন্তান দম্পত্তি।

শিশুটিকে লালন পালন করার আগ্রহ দেখিয়েছেন অসংখ্য মানুষ। এরই মধ্যে একজন শিশুটিকে বুকের দুধ খাওয়াতে শুরু করেছেন। নিয়মিত যত্নও করছেন।

হাসপাতালের সিনিয়র নার্স মুক্তি রাণী দাস জানান, ১৫ দিন আগে এক নারী শিশুটির জন্ম দেন। চারদিন পর চলে যান প্রসূতি ও নবজাতক। কিন্তু ঠাণ্ডাজনিত অসুখের কারণে শিশুটিকে নিয়ে আবারো হাসপাতালে আসেন ওই নারী।

তিনি আরো জানান, বৃহস্পতিবার রাতে হাসপাতালের চতুর্থ তলায় নারী ও শিশু ওয়ার্ডের একটি বেডে শিশুটিকে একা ফেলে চলে যান মা। কান্না শুনে একজন নার্স ছুটে গিয়ে দেখেন শিশুটির পাশে তার মা নেই। ঘটনা জানাজানি হলে পুরো হাসপাতালে হইচই পড়ে যায়।

হাসপাতালের আরএমও ডা. সুজাউদ-দৌলা রুবেল জানান, অপরিণত বয়সে জন্ম নেয়া শিশুটি প্রথমে অসুস্থ থাকলেও সেবা-যত্ন পেয়ে এখন বেশ সুস্থ। প্রকৃত অভিভাবক না এলে নিয়ম মেনেই এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেয়া হবে। নবজাতককে দত্তক নিতে এরই মধ্যে ১৫ জনের বেশি মানুষ যোগাযোগ করেছেন।

তিনি আরো জানান, চাঁদপুর সদর উপজেলার শাহতলী গ্রামের ঠিকানা ব্যবহার করে ‘সাথী’ নামে হাসপাতালে ভর্তি হন ওই প্রসূতি। তবে ওই ঠিকানায় তাদের খুঁজে পাওয়া যায়নি। এ নিয়ে বেকায়দায় পড়েছে কর্তৃপক্ষ।

কুলসুমা বেগম নামের এক নারী বলেন, আমি শিশুটিকে মায়ের আদর-স্নেহ দিয়ে লালন-পালন করছি। তাকে পালনের জন্য হাসপাতাল কর্তৃপক্ষকে বলেছি। কিন্তু তারা কোনো সিদ্ধান্ত জানায়নি।

চাঁদপুর জেনারেল হাসপাতালের সমাজসেবা অধিদফতরের কর্মকর্তা মনিরুল ইসলাম বলেন, সরকারি নিয়ম মেনেই নবজাতককে বেড়ে উঠার জন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।

ডেইলি বাংলাদেশ/এমকে/এআর