Alexa নতুন পোল ও ওয়াট লাইট পেল নাসিক

নতুন পোল ও ওয়াট লাইট পেল নাসিক

নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১৬:১০ ১৮ নভেম্বর ২০১৯  

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

ইভটিজিং ও ছিনতাই রোধে নিরাপদে সড়কে চলাচলের লক্ষ্যে নাসিক মেয়র ডা. সেলিনা হায়াৎ আইভী নয় ওয়ার্ডে নতুন পোল ও অত্যাধুনিক ওয়াট লাইট স্থাপন শুরু করেছেন। এরইমধ্যে পোলগুলো সড়কে স্থাপনের পর সড়কের সৌন্দর্য বৃদ্ধি পেয়েছে। এতে উপস্থিত নগরবাসী মেয়র আইভীকে অভিনন্দন ও ধন্যবাদ জানিয়েছে।

সোমবার দুপুরে নাসিক ১২নম্বর ওয়ার্ডের খানপুর হাসপাতালের সামনের সড়কের দুই পাশে ২২টি নতুন পোল ১২০ ওয়াট লাইট স্থাপনের কাজ উদ্বোধন করা হয়েছে। উদ্বোধন করেন নাসিক প্যানেল মেয়র মিনোয়ারা বেগম ও ১২নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর শওকত হাসেম শকু।

‘প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উদ্যোগ ঘরে ঘরে বিদ্যুৎ' স্লোগানকে সামনে রেখে নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের নির্মাণ ও উন্নয়ন প্রকল্পের বাংলাদেশ সরকার (জিওবি) অর্থায়নে সিটি কর্পোরেশনের এলাকায় এল.ই.ডি সড়ক বাতি স্থাপনে ১৩ কোটি ১৮ লাখ টাকা ব্যয়ে ৯১০টি নতুন পোল ১২০ ও অটো এল.ই.ডি ওয়াট লাইট স্থাপন করা হবে। এই কাজ ২০২০ সালের জুলাই প্রথম সপ্তাহে শেষ করা হবে জানিয়েছেন কাজ পাওয়া ঠিকাদার।

স্থানীয় কাউন্সিলর শওকত হাসেম জানান, নাসিক মেয়র ডা. সেলিনা হায়াৎ আইভী নিজ উদ্যোগে এই খানপুর হাসপাতালের সামনে দুই পাশের সড়কে অত্যাধুনিক আলোকসজ্জা ব্যবস্থা করেছেন। সে কারণে এখানে সড়কের দুই পাশে ২২টি নতুন পোল ১২০ ও অটো এলইডি ওয়াট লাইট স্থাপনের কাজ  আজ থেকে শুরু হল। 

তিনি বলেন, এই হাসপাতাল রোডে বিকেল থেকে কয়েক হাজার লোক পরিবার নিয়ে সড়ক অতিক্রম করে থাকে। তাই এখানে যেন আর কোনো ছিনতাই বা ইভটিজিংসহ বিভিন্ন সামাজিক সমস্যা না হয়, সেজন্য মেয়র এই লাইটিংয়ের ব্যবস্থা করেছেন। এখন থেকে আর বিদ্যুতের খাম্বা বা পোল থেকে নগরবাসীদের লাইটের আলো থেকে আরো উজ্জল আলো প্রয়োজন হবে না। এই কাজ শেষে হলে নগরবাসীর সুবির্ধাথে প্রয়োজনীয় আলো পাবেন। নতুন ওয়াট লাইট এলইডি লাইটগুলো অটো, এর ফলে সন্ধ্যা ও রাতে সড়কের আলো প্রয়োজনানুসারে কম বেশি হবে।

প্যানেল মেয়র মিনোয়ারা বেগম জানান, নাসিকের মেয়র ডা. সেলিনা হায়াৎ আইভী তার নগরবাসীদের জন্য অত্যাধুনিক আলোক ব্যবস্থার উদ্যোগ নেন। তখন আমাদের পর্ষদ থেকে তিনি আগ্রহ জানতে চান। সবার সম্মতিক্রমে প্রথমেই নাসিক ১০ থেকে ১৮নম্বর ওয়ার্ড পর্যন্ত এই ৯১০টি নতুন পোল ১২০ ওয়াট লাইট স্থাপন করা হবে। এই ঠিকাদার কোম্পানি স্থাপন থেকে তিনবছর এই পোল ও লাইটের সব দায়িত্ব পালন করবে। এছাড়াও একটি পোল থেকে আরেকটি পোলের দূরত্ব হবে  প্রায় ৮০ ফুট।

ডেইলি বাংলাদেশ/জেএস