নওয়াজ শরিফকে ‘পলাতক’ ঘোষণা পাকিস্তানের

নওয়াজ শরিফকে ‘পলাতক’ ঘোষণা পাকিস্তানের

আন্তর্জাতিক ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১৯:৩৩ ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২০   আপডেট: ১৯:৩৯ ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২০

ছবি: নওয়াজ শরীফ

ছবি: নওয়াজ শরীফ

জামিনের শর্ত হিসেবে লন্ডনের চিকিৎসকের দেয়া কোনো মেডিক্যাল রিপোর্ট উপস্থাপন না করায় পাকিস্তানের সাবেক প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরীফের জামিনের মেয়াদ আর না বাড়িয়ে তাকে ‘পলাতক’ ঘোষণা করেছে দেশটির সরকার।

মঙ্গলবার প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের সভাপতিত্বে ফেডারেল ক্যাবিনেটের এক বৈঠকে তাকে পলাতক ঘোষণা করার সিদ্ধান্ত নেয়া হয় বলে বুধবার এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে মধ্যপ্রাচ্য ভিত্তিক সংবাদমাধ্যম গাল্ফ নিউজ।

বৈঠকের পর প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ তথ্য-সহকারী ডা. ফিরদৌস আশিক আওয়ান এক সংবাদ সম্মেলনে বলেন, লন্ডনের যেকোনো হাসপাতালের মেডিকেল রিপোর্ট দাখিল করতে ব্যর্থ হওয়ায় মেডিকেল বোর্ড নওয়াজ শরীফের পাঠানো মেডিকেল সার্টিফিকেট প্রত্যাখ্যান করেছে এবং সরকার তাকে পলাতক হিসেবে ঘোষণা দিয়েছে।

তিনি বলেন, আইন অনুযায়ী আজ থেকে নওয়াজ শরীফ পলাতক। তিনি যদি দেশে ফিরে না আসেন তাহলে তাকে পলাতক অপরাধী হিসেবে ঘোষণা দেয়া হবে।

ফিরদৌস বলেন, লন্ডনের যেকোনো হাসপাতালের মেডিকেল রিপোর্ট দাখিলের জন্য ইসলামাবাদ হাইকোর্টের নির্দেশে পাঞ্জাব প্রদেশের সরকার নওয়াজ শরীফের কাছে একাধিকবার চিঠি লিখেছে। তবে তিনি তা পাঠাতে ব্যর্থ হয়েছেন। তিনি মাত্র একটি সার্টিফিকেট পাঠিয়েছেন, যা মেডিকেল বোর্ড প্রত্যাখ্যান করেছে।

ফিরদৌস আরো বলেন, নওয়াজ শরীফ যদি গুরুতর অসুস্থ্য হন, তাহলে মেডিকেল বোর্ডের কাছে কেন বিস্তারিত রিপোর্ট দাখিল করছেন না তিনি।

রাজনৈতিক দল পাকিস্তান মুসলিম লীগ-নওয়াজের (পিএমএল-এন) এই প্রধান দুর্নীতির মামলায় দোষী সাব্যস্ত হয়ে কারাবন্দি ছিলেন। তবে গত বছরের ১৯ নভেম্বর ইসলামাবাদ হাইকোর্ট তাকে চিকিৎসার জন্য আট সপ্তাহের জামিনে বিদেশ যাওয়ার অনুমতি দেয়।

ওই দিনই লন্ডনের উদ্দেশে দেশ ছাড়েন নওয়াজ শরিফ। তার সঙ্গে ছোট ভাই এবং দেশটির সংসদের বিরোধীদলীয় নেতা শাহবাজ শরিফও ছিলেন। গত ২৪ ডিসেম্বর এই জামিনের মেয়াদ শেষ হয়।

নওয়াজ শরীফের চিকিৎসকের মতে, পাকিস্তানের তিনবারের প্রধানমন্ত্রী জটিল রোগে ভুগছেন এবং যথেষ্ট পরিমাণে হুমকিতে রয়েছেন। আর এ কারণে অপারেশনও করিয়েছেন তিনি।

ডেইলি বাংলাদেশ/মাহাদী