ধর্ষণে অন্তঃসত্ত্বা স্কুলছাত্রী, প্রতিবেশী দাদা গ্রেফতার

ধর্ষণে অন্তঃসত্ত্বা স্কুলছাত্রী, প্রতিবেশী দাদা গ্রেফতার

লালমনিরহাট প্রতিনিধি  ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১৮:২২ ২৮ মে ২০২০   আপডেট: ১৮:২৩ ২৮ মে ২০২০

ফাইল ফটো

ফাইল ফটো

লালমনিরহাটে ষষ্ঠ শ্রেণির ছাত্রী ধর্ষণের শিকার হয়ে তিন মাসের অন্তঃসত্ত্বা হওয়ার ঘটনায় মোক্তার আলী নামে এক প্রতিবেশী দাদাকে গ্রফতার করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার দুপুরে ওই দাদাকে গ্রেফতার করে পাটগ্রাম থানা পুলিশ।

এর আগে মঙ্গলবার রাতে কিশোরীর বাবা বাদী হয়ে পাটগ্রাম থানায় তার বিরুদ্ধে মামলা করেন। ধর্ষক মোক্তার উদ্দিন ওরফে মোক্তার আলী লালমনিরহাটের পাটগ্রাম উপজেলর পাটগ্রাম ইউপির টেপুরগারী এলাকার আবুল খায়েরের ছেলে। 

এদিকে ওই মামলায় মোক্তারকে গ্রেফতার দেখিয়ে লালমনিরহাট আদালতে সোপর্দ করা হলে আদালত জামিন নামঞ্জুর করে তাকে কারাগারে প্রেরণের নির্দেশ দেন। ওই শিক্ষার্থীকে পুলিশ হেফাজতে স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য বুধবার দুপুরে লালমনিরহাট সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। 

কিশোরী জানায়, ফেব্রুয়ারি মাস থেকে তাকে ধর্ষণ করে আসছিল প্রতিবেশী দাদা মোক্তার। ঘন ঘন বমি ও খেতে না পারার কারণ খুঁজতে গিয়ে দাদি বুঝতে পারেন শিশুটি অন্তঃসত্ত্বা।

পাটগ্রাম থানার ওসি সুমন কুমার মোহন্ত বলেন, শিশুটি ৩ মাসের অন্তঃসত্ত্বা। প্রাথমিক পরীক্ষায় নিশ্চিত হওয়ার পর তার বাবার অভিযোগটি মামলা হিসেবে রেকর্ড করা হয়েছে। আসামিকে গ্রেফতার করে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

ওসি আরো বলেন, শিশুটির শারীরিক পরীক্ষা-নিরীক্ষার জন্য লালমনিরহাট সদর ১০০ শয্যা বিশিষ্ট হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে আসামি মোক্তার ওই শিশুটিকে ৭ দিন ধর্ষণের কথা জানিয়েছে।

ডেইলি বাংলাদেশ/এমএইচ