Alexa ধর্ষণের পর থানায় বিয়ে: ওসি প্রত্যাহার, এসআই বরখাস্ত  

ধর্ষণের পর থানায় বিয়ে: ওসি প্রত্যাহার, এসআই বরখাস্ত  

পাবনা প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১৩:১২ ১২ সেপ্টেম্বর ২০১৯   আপডেট: ০৭:৫৮ ১৬ সেপ্টেম্বর ২০১৯

ওসি ওবাইদুল হক

ওসি ওবাইদুল হক

পাবনা সদর থানায় ধর্ষণের শিকার গৃহবধূর সঙ্গে ধর্ষকের বিয়ের ঘটনায় ওসি ওবাইদুল হককে প্রত্যাহার করা হয়েছে। এ ঘটনায় থানার এসআই একরামুল হককে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়।

বৃহস্পতিবার দুপুরে পাবনা সদর সার্কেলের অতিরিক্ত এসপি ইবনে মিজান এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, দুই পুলিশ কর্মকর্তাকে পাবনা পুলিশ লাইনসে ক্লোজড করা হয়েছে। এর আগে জেলা পুলিশরে উদ্যোগে ঘটনার তদন্ত করা হয়। এ সময় তাদের শোকজ করা হয়।

অতিরিক্ত এসপি ইবনে মিজান আরো জানান, এ ঘটনায় বৃহস্পতিবার হোসেন আলী ও সঞ্জুকে গ্রেফতার করা হয়েছে। এর আগে মামলার অন্যতম আসামি রাসেল আহমেদ ও শরিফুল ইসলাম ঘন্টুকে গ্রেফতার হয়। এর মধ্যে মামলার প্রধান আসামি রাসেল আহমেদ বৃহস্পতিবার আদালতে ঘটনার স্বীকারোক্তি দিয়েছেন।

২৯ আগস্ট রাতে পাবনার যশোদল গ্রামের রাসেল আহমেদ চার সহযোগী নিয়ে গৃহবধূকে অপহরণ করে। ওই গৃহবধূকে টানা চার দিন অজ্ঞাত স্থানে রেখে পালাক্রমে ধর্ষণ করে তারা। ভুক্তভোগী গৃহবধূ কৌশলে পালিয়ে স্বজনদের বিষয়টি জানালে ৫ সেপ্টেম্বর তাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। মেডিকেল পরীক্ষায় ধর্ষণের আলামতও মেলে। পরে ভুক্তভোগী গৃহবধূ বাদী হয়ে পাবনা সদর থানায় লিখিত অভিযোগ দিলে পুলিশ রাসেলকে আটক করে। তবে মামলা নথিভুক্ত না করে স্থানীয় চক্রের মাধ্যমে আগের স্বামীকে তালাক ও অভিযুক্ত রাসেলের সঙ্গে ভুক্তভোগীকে বিয়ে দেয়া হয়। এতে কয়েকজন পুলিশ কর্মকর্তা জড়িত বলে অভিযোগ উঠে । 

ডেইলি বাংলাদেশ/এমকেএ