দ্রাবিড়ের কারণেই বিশ্বকাপ খেলতে পারেননি সৌরভ-শচীন!

দ্রাবিড়ের কারণেই বিশ্বকাপ খেলতে পারেননি সৌরভ-শচীন!

স্পোর্টস ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১২:৪৩ ৩০ জুন ২০২০  

ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

ভারতের ক্রিকেট ইতিহাসে বাঁকবদলের বছর ২০০৭ সাল। সেবার দক্ষিণ আফ্রিকায় অনুষ্ঠিত প্রথম টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে মহেন্দ্র সিং ধোনির নেতৃত্বে চ্যাম্পিয়ন হয় ভারত। এই আসরে খেলেননি দলটির সিনিয়র অনেক ক্রিকেটার, যাদের মাঝে ছিলেন শচীন টেন্ডুলকার, সৌরভ গাঙ্গুলী। মূলত রাহুল দ্রাবিড়ের কারণেই বিশ্বকাপে খেলতে পারেননি তারা। 

সম্প্রতি সেই বিশ্বকাপে সৌরভ-শচীনের না খেলার কারণ ফাঁস করেছেন ভারতের তৎকালীন কোচ লালচাঁদ রাজপুত। এক ক্রিকেটভিত্তিক ওয়েবসাইটের সঙ্গে লাইভ অনুষ্ঠানে তিনি বলেন, ‘রাহুল দ্রাবিড়ই শচীন-সৌরভকে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে খেলতে দেয়নি। ইংল্যান্ড সফরে দ্রাবিড় ছিল দলের ক্যাপ্টেন। ভারতীয় দলের কয়েকজন কিন্তু টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের জন্য ইংল্যান্ড থেকে জোহানেসবার্গ উড়ে গিয়েছিল। কিন্তু শচীন-সৌরভরা যায়নি।’ 

কারণ ব্যাখ্যা করে রাজপুত বলেন, ‘দ্রাবিড় চাইছিল তরুণদের সুযোগ দেয়া হোক। তাই সিনিয়রদের সে যেতে দেয়নি। কিন্তু আমি মনে করি ধোনির দল বিশ্বচ্যাম্পিয়ন হওয়ার পর ওদের নিশ্চয়ই আফসোস হয়েছিল। কারণ শচীন বরাবর আমাকে বলেছিল যে, এত বছর ধরে খেলছি কিন্তু বিশ্বকাপ কখনো জিততে পারলাম না!’

অবশ্য ২০১১ সালেই শচীনের আফসোস মিটেছিল। সেবার দেশের মাটিতে ৫০ ওভারের বিশ্বকাপে শ্রীলংকাকে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন হয় ভারত। তবে রাহুল দ্রাবিড় ও সৌরভ গাঙ্গুলী কখনো বিশ্বকাপজয়ী দলের সদস্য হতে পারেননি। দ্রাবিড় তার ক্যারিয়ারের শেষ ওয়ানডে খেলেছিলেন ২০১১ সালের ১৬ সেপ্টেম্বর। কিন্তু বিশ্বকাপের স্কোয়াডে তিনি ছিলেন না। অন্যদিকে ২০০৮ সালেই আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে অবসর নেন সৌরভ।

ডেইলি বাংলাদেশ/এএল