Alexa দেড়শ রাউন্ড গোলাগুলি, নিহত দুই: র‍্যাব ডিজি

বসিলায় জঙ্গি আস্তানা

দেড়শ রাউন্ড গোলাগুলি, নিহত দুই: র‍্যাব ডিজি

নিজস্ব প্রতিবেদক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১২:৩৭ ২৯ এপ্রিল ২০১৯   আপডেট: ২০:৩৬ ২৯ এপ্রিল ২০১৯

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

রাজধানীর মোহাম্মদপুরের বসিলা এলাকার জঙ্গি আস্তানায় র‌্যাবের অভিযানে অন্তত দুজন নিহত হয়েছেন বলে ধারণা করা হচ্ছে। এরা নিঃসন্দেহে জঙ্গি ছিল। তাদের সঙ্গে লড়তে অন্তত দেড়শ রাউন্ড গুলি চালাতে হয়েছে। তিনটি বিচ্ছিন্ন পা পাওয়া গেছে। 

সোমবার প্রায় পাঁচ ঘণ্টার অভিযান শেষে সাংবাদিকেদের এসব কথা জানান র‌্যাবের মহাপরিচালক বেনজীর আহমেদ। এ সময় তিনি বলেন, আমাদের অভিযান এখনো চলমান রয়েছে, অভিযান শেষ হয়নি।

তিনি বলেন, অভিযানের পর বোম ডিসপোজাল ইউনিট ভেতরে ঢুকে ছিন্নভিন্ন দেহ দেখতে পায়। অন্তত তিনটি পা দেখা যাওয়ায় ধারণা করা হচ্ছে ওই বিষ্ফোরণে অন্তত দুজনের মৃত্যু হয়েছে।

এ সময় র‌্যাব মহাপরিচালক আরো বলেন, এখন বাড়িটি ক্লিন করা হয়নি। এটি ক্লিন করতে সময় লাগবে। এরপর বুঝা যাবে কয়জন মারা গেছেন। 

তিনি বলেন, বাংলাদেশ থেকে জঙ্গিরা নির্মূল না হওয়া পর্যন্ত তাদের বিরুদ্ধে আমাদের রুটিন কাজ চলমান থাকবে। আমরা এই কথাটি বলতে চাই, বাংলাদেশে যারা জঙ্গিবাদে দীক্ষিত হচ্ছেন, তারা যেন ফিরে আসে। কারণ এসব কাজ ইসলাম-মুসলমানদের বিপক্ষে যাচ্ছে। এসব কারণে মুসলমানদের বিষয়ে ভিন্ন ধারণা সৃষ্টি হচ্ছে। আমাদের ধর্ম এগুলো সমর্থন করে না। 

কিভাবে বিস্ফোরক নিয়ে জঙ্গিরা আসলো- এমন প্রশ্নের জবাবে র‌্যাব মহাপরিচালক বলেন, এগুলো যদি ধরতে পারতাম, তাহলে তারা এখানে আসতে পারতো না। তবে তারা বড় কিছু ঘটানোর আগেই আমরা তাদের ধরতে পেরেছি। এদের নাশকতা ঘটানোর পরিকল্পনা হয়তো ছিল। তিনি বলেন, তারা চলতি মাসের ১ তারিখে বাড়িটিতে উঠেছিল।

এর আগে র‌্যাব এর পরিচালক (মিডিয়া) মুফতি মাহমুদ খান সাংবাদিকদের জানান, রোববার রাত তিনটার দিকে গোপন সংবাদে জানা যায়, জেএমবির সক্রিয় একটি গ্রুপ নাশকতার জন্য রাজধানীর মোহাম্মদপুরের বসিলায় একটি বাড়িতে অবস্থান করছে, গোলাবারুদও মজুদ আছে। খবর পাওয়ার পরপরই র‌্যাব ঘটনাস্থলে পৌঁছায়।

তিনি আরো বলেন, রাত সাড়ে তিনটার দিকে ভেতর থেকে গুলি চালানো হয়। এরপরই আমরা নিরাপদ স্থানে সরে এসে পাশের ভবনগুলোর লোকজনকে নিরাপদে সরিয়ে আনি। এরপর র‌্যাব সদস্যরা বাইরে থেকে জঙ্গি আস্তানায় গুলি চালায়। পরে ভোর পাঁচটার দিকে বাড়িটির ভেতরে বড় ধরনের একটি বিস্ফোরণ ঘটে।

পরে বিস্ফোরণের পর আর কোনো সাড়া-শব্দ না থাকায় ড্রোন দিয়ে স্ক্যান করে পরিস্থিতি বোঝার চেষ্টা করে র‌্যাব টিম। মুফতি মাহমুদ জানান, বিস্ফোরণের ফলে টিনের চালার কিছু অংশ উড়ে গেছে। পরে র‌্যাবের বোম ডিজপোজাল ইউনিট ভিতরে ঢুকে শরীরের বেশ কিছু ছিন্নভিন্ন অঙ্গ দেখতে পায়। পরে সেখানে সুইপিং অভিযান চালান র‌্যাব’র সদস্যরা।

ডেইলি বাংলাদেশ/ইএ/এএএম/জেডআর

Best Electronics

Best Electronics