Alexa দুর্নীতি বিরোধী অভিযান সফল করার আহ্বান রাষ্ট্রপতির

দুর্নীতি বিরোধী অভিযান সফল করার আহ্বান রাষ্ট্রপতির

নিউজ ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১৯:৪১ ৮ অক্টোবর ২০১৯   আপডেট: ১৯:৪৮ ৮ অক্টোবর ২০১৯

রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ বঙ্গভবনে দুর্গাপূজা উপলক্ষে হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের প্রতি শারদীয় শুভেচ্ছা বার্তা দেন-পিআইডি

রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ বঙ্গভবনে দুর্গাপূজা উপলক্ষে হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের প্রতি শারদীয় শুভেচ্ছা বার্তা দেন-পিআইডি

জঙ্গিবাদ, মাদক, চাঁদাবাজি ও জুয়াসহ সব ধরনের দুর্নীতির বিরুদ্ধে সরকারের চলমান অভিযানকে সফল করতে সবাইকে এগিয়ে আসার আহ্বান জানিয়েছেন রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ।

মঙ্গলবার বঙ্গভবনে বাঙালি হিন্দু সম্প্রদায়ের সবচেয়ে বড় ধর্মীয় উৎসব দুর্গাপূজা উপলক্ষে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে তিনি একথা বলেন। এ সময় রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ ও তার পত্নী রাশিদা খানম অতিথিদের সঙ্গে শুভেচ্ছা বিনিময় করেন। অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন রাষ্ট্রপতির সংশ্লিষ্ট সচিবরা।

রাষ্ট্রপতি বলেন, দুর্নীতি দেশের আর্থ সামাজিক উন্নয়নে সবচেয়ে বড় বাধা। কাজেই চলমান দুর্নীতি বিরোধী অভিযানকে সফল করতে সবাইকে অবশ্যই এগিয়ে আসতে হবে।

তিনি আরো বলেন, আমি নিজে অন্যায় করি না, অন্য কাউকেও অন্যায় করতে দেব না।

রাষ্ট্র প্রধান বলেন, সবাইকে ধর্মীয় অনুশাসন অনুযায়ী সব ধরনের দুর্নীতি ও অন্যায় আচরণ দূর করার নীতিগতভাবে অঙ্গীকার করতে হবে। ধর্ম অন্যায় কাজ করতে নিষেধ করে।

হামিদ বলেন, তাহলেই আমরা দেশকে সামনে এগিয়ে নিতে যেতে পারব এবং উন্নয়নের পাশাপাশি দেশে একটি শান্তিপূর্ণ সমাজ প্রতিষ্ঠা করা সম্ভব হবে।

শান্তি ও মানবতা ধর্মের প্রধান বার্তা উল্লেখ করে রাষ্ট্রপতি ধর্মীয় অনুশাসন মেনে চলার পাশাপাশি মানব কল্যাণে এগিয়ে আসার জন্য সবার প্রতি আহ্বান জানান।

রাষ্ট্রপতি বলেন, সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বাংলাদেশের সবচেয়ে পুরনো ঐতিহ্য এবং সমাজের সব স্তরের মানুষকে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে ঐক্যবদ্ধভাবে এই ঐতিহ্যকে এগিয়ে নিয়ে যেতে হবে।

দুর্গাপূজা উপলক্ষে হিন্দু সম্প্রদায়ের মানুষকে শুভেচ্ছা জানিয়ে রাষ্ট্রপতি দেশের সব ধর্ম ও বর্ণের মানুষের মধ্যকার বিদ্যমান সুসম্পর্ক আরো জোরদার হবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন।

রামকৃষ্ণ মঠের অধ্যক্ষ ও রামকৃষ্ণ মিশনের স্বামী পূর্ণাত্মানন্দ মহারাজ, বেশ কয়েকজন এমপি, বিদেশি কূটনীতিকরা, রাজনৈতিক নেতারা, সম্পাদক, সাংবাদিক নেতা, উচ্চপদস্থ বেসামরিক ও সামরিক কর্মকর্তা, হিন্দু সম্প্রদায়ের নেতা ও সব শ্রেণি এবং পেশার নাগরিকরা অনুষ্ঠানে যোগ দেন।

ডেইলি বাংলাদেশ/এমআরকে